লক্ষ

৪২

জোবায়ের হোসেন জয়,চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
(তরুন উদ্যোক্তাদের জন্য)

লক্ষ যেটা কর সেটা, ঠিক কর তো আগে,
যে কাজ তুমি বেশি পার ছুটো সেটার তরে,
না হলে তুমি এগিয়ে যেতে বাধাগ্রস্ত তো হবেই!!

তার পর তুমি বাধা পাবে সকল কাজের তরে,
দিবে বাঁধা পরিবার আগে, পারবা না বলে বলে,
আবার বাঁধা দিবে তোমায় প্রিয় বন্ধু ও সেটি বলে।
সেই খান থেকে তুমি বাধাপ্রাপ্ত হয়ে – ফিরে এসো না তবে।

পড়বে বাঁধা ধাপে ধাপে টাকা পয়সার তরে,
তার পরেও তুমায় এগিয়ে যেতে হবে,
ছোট্ট ছোট্ট পরিকল্পনা করে।

আস্তে আস্তে সফলতা ধরা দিবে হাতে ,
তখন তুমি এগিয়ে যেত পার সফলতাকে সঙ্গী করে,
তোমার লক্ষের দিকে।

তখন দেখবা সবাই বলবে করছো তুমি কি,
আমরা মনে করছি তুমি পারবানা নাকি?

এখন দেখি পারছো তুমি আমরা সঙ্গে আছি,
তার পরেই তো এগিয়েই যাবাই,
বলবো আমি আর কি?

প্রথম সময় যদি তুমি, এগিয়ে তুমি যাও ,
সময় বেশি লাগবে না তোমার লক্ষ সফল হতে।
তার পর থেকে এগিয়ে তো যাবা,
কে রাখবে তোমায় বেঁধে?

সকল তরুন তোমরা সবাই ঘুরো না চাকরির পিছে,
তোমরা অনেকে শুরু করো নিজে উদ্দোক্তা হয়ে,
চাকরি দিবে বলে, নতুন কিছু নিয়ে ।

তখন তোমায় ফলো করবে কতো তরুন জনে,
তোমায় নিয়ে কতো জায়গায় গল্প জমে যাবে!!

এগিয়ে যাও তুৃমি , সঙ্গে করে মোরে।

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.