করোনা পরিস্থিতি রোধে কঠোর অবস্থানে ভোলার প্রশাসন, বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগী

২০

এইচ এ শরীফ:

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। আগামী ২১শে এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত এই বিধিনিষেধ বহাল থাকবে।

এ বছরের দ্বিতীয় ধাপে লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থান নিয়েছে ভোলা জেলা পুলিশ। গতকাল ও আজ সকাল ছয়টা থেকে জেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থান নিয়ে যান চলাচল এবং জনগণের চলাচল সীমিত করতে দেখা গেছে। সরকারি বিধিনিষেধ মেনে বন্ধ রয়েছে দোকানপাট।

এছাড়াও ভোলা শহর সহ বিভিন্ন উপজেলায় পুলিশ তাদের টহল জোরদার রেখেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। সকাল ৯টা থেকে এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে মনিটরিংয়ে নেমেছেন পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার সহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

এবারে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক ভোলাতে  সর্বাত্মকভাবে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য সরকারি নির্দেশনা পুরোপুরি করতে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত মাঠে থাকবে পুলিশ।

অন্যদিকে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া আইন অমান্য করে রাস্তায় কোন যানবাহন বের হলে জরিমানার আওতায় আনা হচ্ছে। তবে এতে অনেক মোটরবাইক ড্রাইবারদের  মিশ্র বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে।

অপরদিকে ভোলার করোনা পরিস্থিতি বেড়েই চলছে,
ভোলায় গত ২৪ ঘন্টায় ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন আরো ১৪ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ১০ জন ভোলা সদর, ১ জন দৌলতখান ও ২ জন বোরহানউদ্দিন উপজেলার বাসিন্দা।এনিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৪’শ ৭১ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলায় মোট মৃত্যু হয়েছে ১৭ জনের। বৃহস্পতিবার (১৫ই এপ্রিল) সকালে ভোলার সিভিল সার্জন দপ্তর সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.