স্কুল শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

৪০

মোঃ নাজমুল হাসান,দেওয়ানগঞ্,জামালপুরঃ জামালপুর জেলায় দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার কাউনিয়ার উচ্চ বিদ্যালয়ে, অতিরিক্ত টিউশন ফি ধার্য করায়। ২৩/১১/২০২০ইং রোজ সোমবার সকালে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করে এবং টিউশন ফি না দেওয়ার দাবিতে বিদ্যালয় চত্বরে অবস্থান কর্মসূচীর ঘোষনা দেয়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ সাহসী কন্ঠকে বলেন, এ্যাসাইনমেন্ট এর নামে বিদ্যালয় শিক্ষকরা শ্রেণীভেদে ৭০০ থেকে ১০০০ টাকা শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আদায় করছেন এবং সেই টাকা আদায় না হলে এ্যাসাইনমেন্ট জমা নেওয়া হচ্ছে না। তারা আরও বলেন, আমরা আশেপাশের বিদ্যালয় গুলোতে খোজ নিয়ে জানতে পেরেছি, সেখানে এ্যাসাইনমেন্টের নামে কোন প্রকার টাকা পয়সা আদায় করা হয়নি, তাই এই বিদ্যালয়ের টাকা আদায় সম্পূর্ণ অযৌক্তিক।

এ বিষয়ে অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এসাইনমেন্টের জন্য কোন টাকা ধার্য বা আদায় করা হয়নি, যা আদায় করা হচ্ছে সেটা টিউশন ফি/ মাসিক বেতন। আমরা সরকারী বেতন-ভাতা ১০০% পাইনা, দেশের করোনাকালীন পরিস্থিতিতে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে শিক্ষার্থীদের অনাদায়কৃত বকেয়া টিউশন ফি/ মাসিক বেতন আদায় করা হচ্ছে এবং তা সরকার নির্দেশিত প্রক্রিয়া।

এ ব্যপারে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিদ্যালয়ের ভৌগলিক অবস্থান ও বিদ্যালয়ের অধিভূক্ত এলাকার অর্থতিক অবস্থা বিবেচনা পূর্বক যা না হলেই নয়,এমন একটা পরিমান টিউশন ফি আদায় করার সরকারী নির্দেশনা আছে। তবে স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে গত বছরের ধার্যকৃত ফি এর ১০০% আদায় করা যাবেনা। নির্দেশনা না মেনে যদি অতিরিক্ত ফি আদায় করে থাকেন তাহলে ব্যাপারটি আমার জানা নেই।

এসময় স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি মোঃ আজিজুর রহমান, ছাত্রলীগ নেতা মোঃ শফিক রহমান, মোঃ রাজু আহম্মেদ সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। তারপর উপস্থিত অভিভাবকবৃন্দ, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও শিক্ষক মন্ডলীদের নিয়ে দ্রুত আলোচনা করে ৬ষ্ঠ/৭ম শ্রেনী-২০০ টাকা ও ৮ম/৯ম শ্রেনী ৩০০ টাকা করে টিউশন ফি ধার্য করা হলে, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এবং অভিভাবক বৃন্দ তা মেনে নেন।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.