সোহরাওয়ার্দিতে এক অন্যরকম দুপুর

৩২

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কোনো শিশুই পথশিশু হয়ে জন্মায় না! আমাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থার গ্যাঁড়াকলে পরে আজ তাদের হতে হয় ফুল বিক্রেতা, বাদাম বিক্রেতা আরো কতো কি!
রাস্তার ধারে ধারে অসহায় সেসব চাহনিগুলোয় শুধু একটাই হাহাকার আর্তনাদ; এক মুঠো ভাত!’পেটের দায় বড় দায়’ এ বাস্তবের সাথে খুব আগেই পরিচিত হয়ে যায় এসব শিশুরা!

আর ঠিক এইসব অসহায় নিষ্পাপ মুখগুলোর জন্য গত ৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ একবেলা আহারের ব্যবস্থা করে ‘শরৎ-৭১’
“একাত্তরের চেতনাই হোক দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার মূলমন্ত্র” -এই স্লোগানকে সামনে রেখে মানবসেবায় কাজ করে যাচ্ছে শরৎ-৭১।

অসহায় দুস্থ শিশুদের উন্নয়নে ও গ্রামীণ নারীদের দুরাবস্থা দূর করতে তাদের উদ্যোক্তাকরণের পাশাপাশি আরও ১১ টি সেবামূলক লক্ষ্যে কাজ করার উদ্দেশ্যে ২০২০ সালের ১লা ডিসেম্বর শরৎ-৭১ এর প্রতিষ্ঠা করেন প্রতিষ্ঠাতা প্রকৌশলী
মেহেদি হাসান।

“৭১- এর সোনার বাংলায় অনাহারে থাকবে না একটি শিশুও”সেই ধারাবাহিকতার ফলস্বরুপ গত ৫ই ফেব্রুয়ারির রোদেলা দুপুরে ঢাকাস্থ সোহরাওয়ার্দি উদ্যানে পথশিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ করে শরৎ-৭১।

এই ইভেন্টে উপস্থিত ছিলেন শরৎ৭১ এর প্রতিষ্ঠাতা প্রকৌশলী মেহেদী হাসান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন জনাব রুমন খান ড্রাগ ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড এর এইচ আর এক্সিকিউটিভ সহ শরৎ৭১ এর টিম লিডার রওশন জাহান সুমাইয়া , ফাইরুজ আতকিয়া অহনা,নায়্যার খান ও এক্সিকিউটিভ টিম মেম্বারা ।

এসময় প্রতিষ্ঠাতা বলেন,” মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে নিয়ে শিক্ষা সমৃদ্ধ ও মানবিক দেশ গঠন আমাদের লক্ষ্য” সকলের উপস্থিতিতেই ইভেন্টটি শুষ্ঠভাবে সম্পন্ন হয় । দুপুরশেষে বিকেলের শেষ আলোর মতো শিশুদের মুখে ছিল এক আনন্দঝলকানির হাসি! আর শরৎ-৭১ এর প্রাপ্তির ঝোলায় যুক্ত হয় আরো একগুচ্ছ ভালবাসা।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.