সরকারের নতুন আয়োজন ‘সুকুক’-(২য় পর্ব)

মোঃ রফিক ভূঁইয়া খোকা,ব্যুরো প্রধান,ময়মনসিংহ বিভাগঃ
উল্লেখ্য, সম্প্রতি ৬৮টি প্রকল্পের একটির তালিকা করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রকল্পগুলোর জন্য টাকার পরিমাণও নির্ধারণ করা হয়েছে। জানা যায়, এর মধ্যে ১২ হাজার কোটি টাকা লাগবে পাঁচটি প্রকল্পের জন্যই। অর্থ বিভাগের মাধ্যমে জানা যায়, সুকুক বন্ড নিয়ে অর্থ বিভাগ ও বাংলাদেশ ব্যাংক নয় মাস ধরে যৌথভাবে কাজ করছে। প্রাথমিকভাবে অর্থ বিভাগ অনুমান করছে, সুকুকের মাধ্যমে অন্তত ৩০ হাজার কোটি টাকা তোলা সম্ভব।

তবে সমস্যা হলো বাংলাদেশ ব্যাংক ও অর্থ বিভাগের এ বিষয়ে প্রায়োগিক কোন ধারণাও নেই। এর জন্য একটি নীতিমালা তৈরির কাজ চলছে। অর্থ বিভাগ জানায়, বাংলাদেশে পুরো ব্যাংক ব্যবস্থায় শরিয়াহভিত্তিক ব্যাংকগুলোর অংশীদারিত্ব প্রায় ২৫ শতাংশ। অথচ এ ২৫ শতাংশের মধ্যে নামমাত্র অল্পকিছু ব্যাংক সরকারের ঘাটতি বাজেটের অর্থায়নে সহায়তা করে কিংবা অংশগ্রহণ করে। অর্থ বিভাগের পর্যবেক্ষণ ও ধারণা এ ইসলামি সুকুক বন্ডের মাধ্যমে ঘাটতি বাজেট পূরণ ও দেশের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে অংশগ্রহণ বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে। পাশাপাশি সরকারের সুদের ব্যয়ও কমবে। সুকুকের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় আয়ের বিভিন্ন ইতিবাচক দিক থাকায় অনেক অমুসলিম দেশেও সুকুক ব্যবস্থা চালু আছে।

দেশের প্রচলিত বিভিন্ন ইসলামি ব্যাংক কর্মকর্তারা জানান, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুনাফার অংশীদার ( মুদারাবা), লাভ-লোকসান ভাগাভাগি ( মুশারাকা), লাভে বিক্রি (মুরাবাহা), পণ্য তৈরি( ইশতিসনা), উত্তম ঋণ ( করজ হাসান), অগ্রিম ক্রয়( সালাম), ভাড়া( ইজারা) ইত্যাদি নামে সুকুক চালু আছে।

সুকুকের মাধ্যমে অর্থ ছাড়ার দিক দিয়ে বিশ্বে প্রথম স্থানে আছে বর্তমানে মালয়েশিয়া। বাহরাইন, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, কাতার, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুর এমনকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও সুকুক চালু আছে। তাছাড়া আইএফসি ( ইন্টারন্যাশনাল ফাইনান্স কর্পোরেশন, বিশ্বব্যাংক গ্রুপ), ইসলামি উন্নয়ন ব্যাংক ( আইডিবি)- এর মতো আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানেও সুকুক বন্ড চালু আছে। আন্তর্জাতিক গবেষণা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, সুকুকের মাধ্যমে ইসলামি অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি এতই ইতিবাচক ও প্রত্যাশার দাবিদার যে, ২০২১ সালেই সাড়ে তিন ট্রিলিয়ন ডলারে উন্নীত হতে পারে ( ২০১৫ সালেও বিশ্বে ইসলামি অর্থায়নে সম্পদের পরিমাণ ছিল ২ ট্রিলিয়ন বা দুই লাখ কোটি মার্কিন ডলার)।

চলমান থাকবে…..

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.