শেখার নেই সীমানা

১৪

কবি মোঃসাইফুল ইসলাম শামীম(কৃষিবিদ)

জন্ম থেকেই শিখছি কত,
ভুলছি কত কিছু,
শিখতে শিখতেই হচ্ছি বড়,
ভুল ছাড়ে না পিছু৷

নতুন করে শিখি যখন,
ভুলছি সব কত পুরাতন,
আনন্দে ভরে সারা অঙ্গন,
স্বপ্নে ভরে মন ৷

জীবন চলার শত সহস্র বাঁকে,
সমস্যা আসে ঝাঁকে ঝাঁকে,
সব সমাধান নাই তো বইয়ে,
বাস্তব জীবনে এ শিখাটা থাকে৷

পশু পাখি কীটপতঙ্গ সকল সৃষ্টির মাঝে,
কত রকমের কত শিখার আছে,
মৌমাছি আর পিঁপীলিকা,
দেখছনি, কেমন করে বাঁচে?

লিখতে জানলে, পড়তে জানলেই,
শিখা নাহি বলে তারে,
সর্বক্ষণ শিখবে যে,ভুলবে স্বইচ্ছায়,
নতুন করে শিখবে সে বারে বারে৷

শিখতে গিয়ে লজ্জা পেলে,
জীবন হবে অসার,
ছোট বড় সবার কাছে শিখার আছে,
যা দূর করবে জীবনের আঁধার৷

চলার পথে রাস্তা ঘাটে,
থাকে কত শিখার,
পন্ডিতেরা মাঝির কাছে শিখেছিল,
জীবন বাঁচাতে জলে সাঁতার জানা দরকার৷

গরীব দুঃখি ফকির মিছকিন,
শিখার থাকে কাছে সবার,
পুঁথিগত বিদ্যা নিয়ে চলতে গেলে,
নিলাম হত রাজ্য রাজার৷

শেখার নেই তো কোন সীমানা,
শিখতে হয় দোলনা থেকে কবর,
যদি বলে কেউ সব শিখেছি,
মূর্খতার দলে হবে তার আসর।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.