শীতলক্ষ্যা নদীতে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি ১৮ ঘণ্টা পর উদ্ধার

৩২

মোঃ সাইদুল ইসলাম,ঢাকা উত্তর :উদ্ধার অভিযান শেষে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেন গতকাল আনুমানিক ছয়টার দিকে নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সিগঞ্জ গামী সাবিত আল হাসান নামক লঞ্চটি যাত্রাপথে, মদনগঞ্জের কয়লা ঘাটের পাশে ব্রিজের কাজ চলছে, সেখানে লঞ্চটিকে পেছন থেকে একটি কার্গো জাহাজ ধাক্কা দেয়। আনুমানিক ৪৫ জন যাত্রী লঞ্চটিতে ছিল। তাৎক্ষণিকভাবে খবর পেয়ে একযোগে উদ্ধার অভিযান শুরু করে ফায়ার সার্ভিস,কোস্ট গার্ড, নৌ বাহিনী, নৌ পুলিশের ডুবরি দল।

উদ্ধারকাজে তারা ব্যবহার করছিলেন উদ্ধারজাহাজ প্রত্যয় ও দুরন্ত। উদ্ধার কালে ৫টি ও লঞ্চ টি কিনারায় আনার পর ২১টি মোট ২৬ টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এখন মৃতদেহগুলো চিহ্নিত করে হস্তান্তর করার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে দেওয়া হয়েছে।

এই সময় বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান আরো বলেন, অসতর্কতা ও অবহেলার কারণেই এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। এখনো পিছন থেকে ধাক্কা দেওয়া জাহাজটি শনাক্ত করতে পাড়েনি। ইতি মধ্যে তদন্ত কমিটি গটন করা হয়েছে। তবে দোষীদের খুজে ভের করার তৎপরতা চলছে ও বলে জানিয়েছেন তিনি।

এই সময় আশেপাশে ভিড় করে স্থানীয় উৎসুক জনতা। উদ্ধারকর্মীদের পাশাপাশি লঞ্চটি তোলার পর সেখান থেকে মরদেহ উদ্ধার কাজে স্থানীয়দের ও সহযোগিতা করতে দেখা যায়।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.