শর্ত সাপেক্ষে জামিন পেল ধর্ষণ মামলার আসামি

২৭

আহম্মেদ শাকিল,স্টাফ রিপোর্টারঃ বহুল আলোচিত ফেনী কারাফটকে ধর্ষণ মামলার ভুক্তভোগীর সাথে বিয়ে হওয়া আসামি জিয়াউদ্দিনকে একবছরের জন্য জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। সোমবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ফারুক আলমগীর চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন বাপ্পী।

আদেশে আদালত বলেছেন, এই এক বছরের মধ্যে যদি প্রতারণার কোন প্রমাণ পাওয়া যায় তাহলে সেভাবে পদক্ষেপ নেবে বিচারিক আদালত। আদালত শুনানিতে বলেন, নারীবাদী সংগঠনরা এ বিয়ে নিয়ে যে নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন তা অনুচিত। সামাজিক ভারসাম্য রক্ষায় এ ধরণের আদেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে, গত ১৯ নভেম্বর ফেনীর কারাগারে আসামি জিয়াউদ্দিনের সঙ্গে বিয়ে হয় ওই নারীর। মামলার আসামি জিয়া উদ্দিনের বাড়ি ফেনীর সোনাগাজীর ৮ নম্বর চরদরবেশ ইউনিয়নের দক্ষিণ-পশ্চিম চরদরবেশ গ্রামে।

উল্লেখ্য গত ২৭ মে একই ঘরে অবস্থান করা অবস্থায় জিয়া ও অভিযোগকারী মেয়েটিকে আটক করে গ্রামবাসী।স্থানীয় লোকজন বিয়ে দিতে চাইলে ছেলের বাবা আবু সুফিয়ান মেম্বার রাজি হননি। সেদিন মেয়েটি সোনাগাজী থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। পুলিশ একইদিন গ্রেপ্তার করে জিয়াকে। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর বিচারিক আদালতে জামিন চেয়ে ব্যর্থ হয়ে হাইকোর্টে জামিন আবেদন করে আসামি।

গত ১লা নভেম্বর হাইকোর্ট ওই মেয়েকে বিয়ে করলে জামিনের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে আদেশ দেন।তারপর তাদের বিয়ে হয়।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.