রাসুল (সাঃ) এর ভবিষ্যৎ বাণী ২৪ ঘন্টার আগেই শেষ হচ্ছে দিন

৯৯

আবদুল আহাদ,ডেস্ক রিপোর্ট: ২৪ ঘন্টায় একদিন এ কথা এতদিন ধরে জেনে আসলেও বিজ্ঞানীরা দিলেন নতুন তথ্য। তাদের দাবি পৃথিবীর আবর্তন গতির অর্ধশত বছর ধরে বেড়েছে। এ কারণে এক দিনের মেয়াদ ২৪ ঘণ্টার কম হচ্ছে। বিজ্ঞানীদের তথ্য বিশ্লেষণ করে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে জানায় তারা এর প্রমাণ পেয়েছেন।

জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা জানান ২০২০ সালের সব থেকে ছোট দেশের সংখ্যা ছিল ২৮টি। ১৯৬০ সালের পর এটাই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ছোট দিন। বিজ্ঞানীদের আভাস চলতি বছর ছোট দিনের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন ২০২১ সালে একদিনের সময়কাল ৮৬,৪০০ সেকেন্ডের চেয়ে ০.০ মিলিসেকেন্ড কম হবে। দিনের দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট রেকর্ড রেখে চলা পারমাণবিক ঘড়ি গুলো পুরো বছর ধরে প্রায় ১৯ মিলি সেকেন্ডের ব্যবধান তৈরি করবে।

অপর এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায় রেকর্ডে সবচেয়ে দ্রুততম ২৮ দিন দেখা যায় ২০২০ সালে। কারণ ওই দিন গুলোতে পৃথিবী নিজের অক্ষের চারপাশে গুণগুলো ঘর থেকে প্রায় মালি সেকেন্ড সময় দ্রুত ঘুরে। পারমাণবিক ঘড়ি হিসাব অনুযায়ী গত পঞ্চাশ বছর ধরে পৃথিবী তার কক্ষপথে একবার ঘুরে আসতে সময় নিয়েছে ২৪ ঘন্টার চেয়ে কিছু কম।

আরো জানা যায়, ১৯২০ সালের ২০ জুলাই পৃথিবীতে সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত দিয়ে রেকর্ড করা হয়েছিল। ওই দিনটি ছিল ২৪ ঘন্টার চেয়ে ১.৪৬০২ মিলি সেকেন্ড কম। পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০২০ সালের আগে সব থেকে ছোট দিন রেকর্ড করা হয়েছিল ২০০৫ সালে। তবে গেল বছর ২৮ বার সে রেকর্ড ভেঙেছে।

এদিকে এমন ঘটনা কেয়ামতের আলামত হিসেবে দেখছেন বিশিষ্ট আলেমরা। এক হাদীসে বলা হয়েছে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কেয়ামতের আলামত এর আরেকটি উদাহরণ দিয়ে বলেছেন, সময় সংকুচিত হয়ে যাবে। আর সময় সংকুচিত হওয়ার মানে বছর মাসের মতো, আর মাস সপ্তাহের মতো হয়ে যাবে। আর সপ্তাহ হবে দিনের মতো, দিন হবে ঘণ্টার মতো, ঘন্টা হবে খেজুর গাছের পাতা পড়ার মতো ক্ষনিক। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যে ভবিষ্যত বানী করেছেন, আমরা তার মধ্যে দিয়ে পার হচ্ছি বলে মন্তব্য করেছেন বিশিষ্ট আলেমরা।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.