মোংলায় আপন ছোট ভাইয়ের হাতে নিহত বড় ভাই

২০

মোঃমাসুদ পারভেজ, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ বাগেরহাটের মোংলায় আপন ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন হয়েছে। বড় ভাইয়ের মুদি দোকানের বাকী টাকা চাওয়ায় ছোট ভাই তাকে কুপিয়ে জখম করে।

বৃহস্পতিবার(২৪ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে কুপিয়ে জখমের পর শনিবার(২৬ডিসেম্বর) বিকেলে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মোংলা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই জাহাঙ্গীর আলম জানান, মোংলার দিগরাজ বাজারের অটোরাইস মিলের বিপরীত পাশে শেখ আজম (৫২) দীর্ঘদিন ধরে মুদি দোকান দিয়ে আসছিলেন। শেখ আজমের মুদি দোকান থেকে তার আপন ছোট ভাই শেখ ফরিদ বাকীতে পণ্য নিয়ে আসছিলো। দোকানের বাকী পাওনা টাকা চাওয়ায় বৃহস্পতিবার(২৪ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে দুই ভাই বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে ছোট ভাই দা দিয়ে বড় ভাইর মাথার বাম পাশে ও সাবল দিয়ে ডান পায়ে আঘাত করে।

এতে বড় ভাইয়ের মাথা মারাত্মক জখম হয় এবং পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলী কেটে পড়ে যায়। তাৎক্ষনিভাবে তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পথে শনিবার (২৬ডিসেম্বর) বিকেলে বাগেরহাটের ফকিরহাট এলাকায় তার মৃত্যু হয়। সন্ধ্যায় লাশের ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে মোংলা থানা পুলিশ।

এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিহতের ছেলে সোহেল রানা (২৬) বাদী হয়ে চাচা শেখ ফরিদ (৪৮) ও চাচাতো ভাই (ফরিদের ছেলে) শেখ ইয়াছিনের (২৫) বিরুদ্ধে শনিবার(২৬ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় হত্যা মামলা দায়েরের জন্য লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন।

মোংলা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই জাহাঙ্গীর আলম বলেন, হত্যা মামলা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে। তবে এখনও এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলে জানান তিনি।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.