মুজিব বর্ষ উপলক্ষে গৃহহীনদের জন্য যা থাকছে

১৪

মোঃ আনসার আলী,লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ মুজিববর্ষ উপলক্ষে সারাদেশে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর আওতায় গৃহহীনদের জন্য জমি বরাদ্দ ও গৃহ নির্মাণ কাজ চলছে। ওই প্রকল্পের আওতায় চলতি মাসেই লালমনিরহাট জেলায় ৯৭৮ টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতক করে জমি ও বসত বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।
এর মধ্যে তিস্তা নদীর তীরবর্তী হাতীবান্ধা উপজেলার ৪২৫টি গৃহহীন অসহায় পরিবার পাচ্ছে নতুন বাড়ি।

প্রকল্পের সভাপতি হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন বলেন, এ মাসেই গৃহহীন পরিবারগুলো নতুন বসত বাড়ি ও জমির মালিকানার দলিল পাবেন।

জানা গেছে, ২ শতাংশ খাস জমির ওপর প্রতিটি টিন শেড বিল্ডিং ঘর নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। ৩৯৪ বর্গফুটের ওই বাড়িতে নির্মাণ করা হচ্ছে দুটি কক্ষ, রান্নার জায়গা ও একটি টয়লেট।

হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন ও এসিল্যান্ড শামীমা সুলতানা নিয়মিত নিমার্ণাধীন ঘরগুলো তদারকি করছেন। সাথে সহযোগিতা করেছেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস ও উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদফতরের সহকারী প্রকৌশলীরা।

এছাড়াও পাটগ্রাম উপজেলায় ১২৩ টি, কালীগঞ্জ উপজেলায় ১৫০টি, আদিতমারী উপজেলায় ১৩০টি ও সদর উপজেলায় ১৫০টি গৃহ নির্মাণ হচ্ছে বলে জানা গেছে।

গৃহহীন এক অসহায় জয়নব বেগম বলেন, স্বামী নেই। দুই মেয়েকে নিয়ে মানুষের বাড়িতে একটা চালা করে আছি। হঠাৎ খবর পেলাম আমার নামে পাকা ঘর ও জমি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আমার আর বাড়ি নিয়ে চিন্তা নেই।

স্থানীয় স্কুল শিক্ষক লুৎফর রহমান বলেন, তিস্তা নদীর কারণে এ এলাকার অনেক পরিবার প্রতি বছর গৃহহীন হয়ে পড়েন। রাস্তার ধারে অনেকেই চালা করে কষ্টে দিন কাটায় যা দেখে কষ্ট হয়। ওই পরিবারগুলো বসত বাড়ি পাচ্ছে শুনে খুব ভালো লাগছে।

হাতীবান্ধা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শামীমা সুলতানা জানান, সুবিধাভোগী প্রতিটি পরিবারকে ২ শতক করে জমি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে জমির মালিকানা বুঝিয়ে দেয়া হবে।

হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন বলেন, সরকারি সব নিদের্শনা মেনে বসত বাড়িগুলো নির্মাণ করা হচ্ছে। আশা করছি এ মাসেই ঘরগুলো গৃহহীনদের উপহার দিতে পারবো।

লালমনিরহাটের ডিসি আবু জাফর বলেন, প্রথম ধাপে জেলায় ৯৭৮ টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতক জমি ও বসত বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে। পযার্য়ক্রমে সব ভূমিহীনদের এ কর্মসূচির আওতায় নিয়ে আসা হবে।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.