মাধবপুরে প্রেমিকা কে আত্বহত্যা প্ররোচনায় প্রেমিক গ্রেফতার।

১৫৭

লিটন বিন ইসলাম,মাধবপুর প্রতিনিধিঃ

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার রসুলপুর গ্রামে প্রেমিকা কে ঘরে না তুলে বিষপানে আত্বহত্যার প্ররোচনায় মামলায় প্রেমিক আব্দুল আহাদ কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মাধবপুর থানার কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক উত্তম কুমার দাস এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ চৌমহনী ইউনিয়নের মদনপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে আব্দুল আহাদ কে গ্রেফতার করে। সে উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের মৃত রফিক মিয়ার ছেলে।

জানাযায় রসুলপুর গ্রামের আব্দুল আহাদ মিয়ার সঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার সোনামুড়া গ্রামের সালমা বেগম (৩২) নামে প্রবাস ফেরত এক নারীর মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে । গত ৮জুন সালমা বেগম রসুলপুর গ্রামের আব্দুল আহাদের বাড়িতে এসে তাকে ঘরে তুলে নিতে চাপ সৃষ্টি করে। আব্দুল আহাদ রাজি না হওয়ায় সালমা বেগম পুকুর পাড়ে বিষ পান করে। পরে আশংকাজন অবস্হায় বি বাড়িয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।
সালমার মা জাহানারা বেগম এর দাবি সালমা ওমানে থাকাকালীন সময়ে মোবাইল ফোনে তাদের প্রেমের সম্পর্ক হয়, গত ৩ মাস আগে সালমা উমান থেকে দেশে আসে। পরে আব্দুল আহাদের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। স্বামীর দাবি নিয়ে সালমা আহাদের বাড়ি গেলে তাকে ঘরে না উঠিয়ে বিষ খাইয়ে দিয়ে হত্যা করা হয়। এব্যাপারে সালমার মা জাহারানা বেগম গত ১০জুন আব্দুল আহাদ কে প্রধান আসামি করে মাধবপুর থানায় একটি মামলা রুজু করেন। এর পর থেকে আব্দুল আহাদ আত্বগোপনে চলে যায়।মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরির্দশক উত্তম কুমার দাস তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে মামলার ৮দিনের মাথায় প্রধান আসামি আব্দুল আহাদ কে গ্রেফতার করেন।

মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.