মরিচের বাম্পার ফলনের আশা করছে যমুনা চরের চাষীরা “

৩৬

সিফাতুল হাসান, উপজেলা প্রতিনিধি, ইসলামপুর,জামালপুরঃ-

এই বছর দীর্ঘ সময় ধরে বন্যা হবার কারণে মরিচ চাষীরা অনেক দেরিতে মরিচ আবাদ করে।
ফলে অনেক দেরিতে আসে তাদের মরিচ।
এইবার শুরু থেকেই কাঁচা মরিচের অনেক দাম হওয়ার বেশির কৃষক কাঁচা মরিচ বিক্রি করে দিচ্ছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানতে পারলাম ইসলামপুর উপজেলার নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের তারতাপাড়া গ্রামের বেশির ভাগ কৃষক খেতের সমস্ত কাঁচা মরিচ উঠিয়ে বিক্রি করে দিচ্ছেন।

এইবার নোয়ারাপাড়া ইউনিয়ন এর তারতাপাড়া মরিচের ব্যাম্পার ফলন হয়েছে।তারা কাঁচা মরিচ পাইকারি বিক্রি করছেন ৩৫০০ টাকা মণ পর্যন্ত।
তবে বর্তমান বাজার একটু কম এখন বিক্রি হচ্ছে প্রতি মণ পাইকারি মরিচ ২৭০০ বা ২৮০০ টাকা।

তারতাপাড়ার যমুনার চরেও এইবার অনেক ভালো ফসল হইছে।মরিচ চাষী মোহাম্মদ কালু মিয়া জানান এইবছর তিনি অনেক টাকার কাঁচা মরিচ বিক্রি করেছেন যা দিয়ে সংসারে উন্নতি হয়েছে।
আর পাইকারী ক্রেতা শাবানুর রহমান জানান কাঁচা মরিচের চাহিদা ঢাকায় ব্যাপক এইজন্য আমি গ্রামের কৃষকদের কাছ থেকে কিনে নিয়ে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়।।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.