মঠবাড়িয়ায় আওয়ামী লীগের সম্মেলন বন্ধ করার দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ

২০

সঞ্জয় বৈরাগী, পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আগামী ৩১ ডিসেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন স্থগিত করার দাবীতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বরের সমর্থকরা সোমবার বিকেলে উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে একযোগে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

এসময় মঠবাড়িয়া-তুষখালী সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন খান, প্রচার সম্পাদক ফজলুল হক মনি, সাবেক যুবলীগ সভাপতি শাকিল নওরোজ, সহ-সভাপতি নাসির মাতুব্বর প্রমূখ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফি উদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস ১৪ বছরের পুরোনো মনগড়া কমিটি দিয়ে সম্মেলন করে, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীদের নিয়ে নতুন কমিটি করতে পাতানো কাউন্সিলের আয়োজনের পায়তারা করছেন। যা নেতা কর্মীরা মানছে না।

তিনি আরও বলেন, বিগত দিনে মঠবাড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌসের সহযোগিতায় গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী আশরাফুর রহমান ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তারই বড় ভাই উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদের সমর্থিত প্যানেলের সভাপতি হিসেবে, এমাদুল হক খান ও সম্পাদক হিসেবে আরিফ-উল-হককে বানাতে এ পাতানো সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। এ সম্মেলন তৃনমূলের দলীয় নেতা-কর্মিরা মানছে না। তিনি ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে ভুয়া কাউন্সিলর বানানোর অভিযোগ আনেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মঠবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র রফি উদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস জানান, কেন্দ্রীয় ও জেলা কমিটির সিদ্ধান্ত এবং দলীয় গঠনতন্ত্র মোতাবেক সম্মেলনের প্রস্ততি চলছে। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে যারা সম্মেলন বানচালের অপচেস্টা করছে তা বিধি বহির্ভূত।

এ বিষয়ে দলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এদিকে, এ ঘটনায় পৌর শহরসহ ১১টি ইউনিয়নে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। বড় ধরণের সংঘর্ষ এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা গেছে, আগামী ৩১শে ডিসেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দলের নেতা-কর্মীরা বিভক্ত হয়ে পরেছে। সম্মেলনকে ঘিরে সভাপতি ও সম্পাদকের মধ্যে চরম বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রতি পৌরসভা ও ১১টি ইউনিয়নের কমিটি প্রকাশ ও মিডিয়ায় প্রচারকে কেন্দ্র করে এ বিরোধ শুরু হয়।

আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস গণমাধ্যমে প্রচারিত কমিটি ভিত্তিহীন দাবি করে সংবাদ সম্মেলন করেন। একই দিন বিকেলে সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করে গণমাধ্যমে প্রকাশিত কমিটি সঠিক বলে দাবি করেন। এ নিয়ে মঠবাড়িয়া উপজেলাব্যাপী আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.