মজুচৌধুরীহাট ফেরি ঘাটে দক্ষিনাঞ্চলবাসীর উপচে পড়া ভিড়

৩৯

ডেস্ক রিপোর্টঃ মধ্যরাত থেকে মাওয়া ঘাটের ফেরি বন্ধের সিদ্ধান্তের পরে মজুচৌধুরীহাট ফেরিঘাটে দক্ষিণবঙ্গের ঘরমুখী যাত্রীদের উপচেপড়া ঢল পড়েছে। ঢাকা চট্রগ্রাম থেকে শনিবার ভোর থেকেই বিভিন্ন যানবাহনে করে ঘাট এলাকায় উপস্থিত হওয়ার চেষ্টা করেছে থাকে হাজার হাজার যাত্রীরা। এসময় অত্যধিক যাত্রী চাপে হিমশিম অবস্থা তৈরি হয়েছে। তবে ঘাট এলাকায় কোন যানবাহন প্রবেশ করতে দিচ্ছে না পুলিশ। কয়েক কিলোমিটার হেঁটেই ঘাটে উপস্থিত হচ্ছে যাত্রীরা।

এদিকে ফেরিতে যাত্রী উঠতে না দেওয়ায় উপায় না পেয়ে ঘাটে অপেক্ষা করে ও কেউ কেউ আবার বাসায় ও ফিরে যেতে দেখা গেছে। আবার অনেকে এই ঝড় ও মৌসুমে জীবনের ঝুকি নিয়ে ছোট ছোট টলার স্পীড বোটে মেঘনা পাড়ি দিচ্ছে। এতে ব্যায়ের সাথে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে তাদের।

কয়েকজন ভুক্তভোগী অভিযোগ করে জানান, ফেরিতে উঠতে না দেওয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন ছোট ছোট টলার স্পীড বোটে গাদাগাদি করে রওনা করায় এতে আরও করোনা ঝুকি বৃ্দ্ধি পাবে। টলারে জনপ্রতি ৩০০-৪০০ টাকা ভাড়া আদায় করছে। অন্যদিকে স্পীড বোটে ও ৫০০-৬০০ টাকা ভাড়া নিচ্ছে।

এসব ঘটনায় প্রশাসনের তেমন তৎপরতা দেখা যায় নি। অত্যাধিক যাত্রী চাপে অল্প পরিমাণে পুলিশ থাকায় তারা নিরব দর্শকের ভুমিকা ছাড়া তেমন কিছু করারও ছিল না।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.