ব্রাজিল আর্জেন্টিনা ফাইনালে-বিশ্বযুদ্ধের অপেক্ষায় বিশ্ব

১৩৫

 

মেহেদী হাসান সজীব, ডেস্ক রিপোর্টঃ

কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালের হাইভোল্টেজ ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে ড্র করার পর ৩-২ গোলের জয় পেয়ে ফাইনালে পৌঁছে গেল আর্জেন্টিনা। সকাল সাতটায় আর্জেন্টিনার বুয়েন্স আয়ার্সে অনুষ্ঠিত হয় এই হাইভোল্টেজ ম্যাচ টি। ফাইনালে আর্জেন্টিনা প্রতিপক্ষ হিসেবে পাচ্ছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল কে। আর ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ মানে বাংলাদেশি ফুটবল প্রেমীদের ঘরে ঘরে উত্তেজনার আমেজ।

খেলার শুরুতেই পাল্টাপাল্টি আক্রমণ দিয়ে শুরু করে উভয় দলই। ম্যাচের শুরুতেই ৭ মিনিটের মাথায় মেসির পাস থেকে করা মার্টিনেজের গোলে ১-০ এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। এই পাসের মাধ্যমে নজির স্থাপন করলেন মেসি। মেসির আগে কোপায় কেউ ৪টির বেশি গোলের পাস বাড়াতে পারেননি।

এর পর ৯ মিনিটে ফের এটাক করে কলোম্বিয়া কিন্তু আর্জেন্টাইন গোল কিপারের চেষ্টায় আর গোল হয় নি। ২৬ মিনিটের মাথায় ফের ফ্রি কিক পেয়ে ও কাজে লাগাতে পারেন নি কলোম্বিয়া। ৩৮ মিনিটের মাথায় কুয়াদ্রাদোর কর্নার থেকে হেডে গোল করার চেষ্টা করেন মিনা। কিন্তু, তার হেডার ক্রসবার ছুঁয়ে মাঠের বাইরে চলে যায়। ৪৪ মিনিটের মাথায় মেসির কর্নার থেকে গোল করার সুযোগ থাকলে কলম্বিয়ার গোলকিপারের নৈপুণ্যে আর গোল হয় নি। প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই বোরে, তেসিলো ও কুয়েলারকে উঠিয়ে কারদোনা, ফাব্রা ও চারাকে মাঠে নামায় কলম্বিয়া। মলিনার বদলে মন্তিয়েলকে মাঠে নামায় আর্জেন্টিনা। এরপরে ৫৬ মিনিটে লো সেলসোকে তুলে নিয়ে পারেদেসকে মাঠে নামায় আর্জেন্টিনা। ৫৭ মিনিটের মাথায় মাঠের বাইরে চলে যায় মেসির ফ্রি কিক। জাপাতাকে উঠিয়ে মিগুয়েলকে মাঠে নামায় কলম্বিয়া ৬০ মিনিটে। আর ৬১ মিনিটেই কলম্বিয়ার পক্ষে আসে ম্যাচে সমতায় ফেরার গোল। কারদোনার পাস থেকে গোলটি করেন ডায়াজ। ৬৩ মিনিটে হলুদ কার্ড দেখে ফেলেন মিগুয়েল। এরপর তুমুল ভাবে চলতে থাকে পাল্টাপাল্টি আক্রমণ। ৮২ মিনিটে ডি মারিয়ার পাস থেকে নেয়া বলে শট নেন মেসি। কিন্তু, পোস্টে লেগে বল প্রতিহত হয়। শেষ দিকে মেসি একটি ফ্রী কিকের সুযোগ পেলেও আর গোলের দেখা পান নি। এর পর কিছুক্ষণ আক্রমণ চলতে থাকলে ও কোনো দলই আর গোলের দেখা পায়নি।

নির্ধারিত ৯০ মিনিটে ফলাফল অমীমাংসিত থাকায় টাইব্রেকারে পর্যন্ত খেলা গড়ায়। কোপার আয়োজক সংস্থা কনমেবল নকআউট পর্বে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট খেলা বাতিল করায় ম্যাচ সরাসরি গড়ায় টাইব্রেকার হয়। টাইব্রেকারে আর্জেন্টিনা করে ৩টি গোল আর কলম্বিয়া করে ২টি গোল। শেষ পর্যন্ত অসাধারণ এক জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন মেসি বাহিনী। আগামী ১১ তারিখ ফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা।

83% LikesVS
17% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.