বারহাট্টার বীর মুক্তিযোদ্ধা স্বর্গীয় বাবু স্বপন কুমার বিশ্বাসের এর ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী

ওমর ফারুক আহম্মদ, জেলা প্রতিনিধি (নেত্রকোণা বারহাট্টা)

নেত্রকোণা বারহাট্টা বৃ-কালিকা গ্রামের স্বপন কুমার বিশ্বাস।
সর্বজনীন পরিচিত নাম : স্বপন ভেন্ডার ।
জন্মদাতা : ভবতারণ বিশ্বাস।
গর্ভধারিনী : সরোজ বালা ।
গ্রাম : বৃ কালিকা, থানা -বারহাট্টা ,
ডাকঘর – বারহট্টা , জেলা
নেত্রকোণা।
পৃথিবীতে আগমন
এই জগৎ সংসারে পিতা -মাতার কোল
আলো করে ১৭-ই এপ্রিল১৯৫২
খ্রিঃ,পৃথিবীর বুকে আগমন করেন।
জ্ঞানের আলোয় আলোকিত পথচলা-
★ বারহাট্টা উপজেলার বর্তমান মডেল
সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে
প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করেন।
★ এরপর আটপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ও এন
জারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে লেখাপড়া
করেন
★ ১৯৬৭ খ্রিঃ বারহাট্টা সি,কে, পি
পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস,এস,সি
পরিক্ষায় উত্তীর্ন হন।
কর্ম জীবনে যাত্রা
ইংরেজী ১৯৭২-৭৩ সনে তিনি দলিল
লেখক পেশায় নিয়োজিত হন।
কর্ম ব্যাক্তি জীবনের সুদীর্ঘ পথচলা
তিনি দলিল লেখক পেশা কে যেমন
জীবনের বেঁচে থাকার নিমিত্ত
হিসেবে বেছে নেন, তেমনি
জনসেবা হিসেবেও গ্রহণযোগ্যতা দেন
তাই মা -মাটি মানুষের তথা আম জনতা
বা গরীব -দুঃখী সহ সর্ব স্থরের মানুষের
কাছে ” স্বপন ভেন্ডার ” হিসেবে
সর্বাধীক পরিচিতি লাভ করেন।
★★★১৯৭১- এ দেশমাতৃকাকে
পাকিস্তানি শত্রুর হাত থেকে মুক্ত
করার তরে অস্ত্র হাতে তুলে নেন। জন
সেবা, সমাজ সেবা, ও দেশ প্রেমের
পৃষ্ঠপোষক হিসেবে ১৯৭১ সনের
মুক্তিযুদ্ধের সময় নিজ জীবনের মায়া
ত্যাগ করে স্বাধীনতা অর্জনে ভূমিকা
রাখেন। (বারহাট্টা উপজেলার রায়পুর
ইউনিয়নে ১৯৭১ এর যুদ্ধকালীন সময়
কাটান )।
সংসার জীবন
“মানুষ একা থাকতে পারে না তাই সে
সঙ্গী চায় তাই দূর্গাপুর থানার
কাকরগড়া গ্রামে স্বপ্না রানী
বিশ্বাস এর সহিত বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ
হন।
তিনি ৪ (চার) কন্যা ও ১( এক) পুত্র
সন্তান এর জনক হন।
সন্মাননা প্রাপ্তি / কৃতিত্ব
★ পেশাগত জীবনে খুবই সুনামের সহিত
বারহাট্টা সাব রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে
কাজ করে সর্বস্থরের মানুষের
ভালবাসা অর্জন করেন।
★★★ বারহাট্টা সাবরেজিস্ট্রার এর
কার্যালয়ে দলিল লিখক সমিতির
সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন
করেন দীর্ঘ দিন।
★★★ তিনি ধার্মীক ও ধর্মীয় দৃষ্টিতে
তিনি একজন উদার পন্থী ব্যাক্তি
হিসেবে সকল ধর্মের লোকদের অগাধ
ভালবাসতেন। সনাতন ধর্মালম্বী মানুষ
হিসেবে বারহাট্টার বিভিন্ন ধর্মীয়
প্রতিষ্ঠানে সভাপতি সহ বিভিন্ন
পদের সন্মাননা প্রাপ্ত হয়ে সফল ভাবে
দায়িত্ব পালন করেন।
বিদায়ী বারতা
বিগত বাংলা ২৬শে বৈশাখ ১৪২২ (১০ই
মে ২০১৫ ইং) তারিখ রোজ রবিবার দুপুর
২ ঘটিকা ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় হৃদযন্ত্র
ক্রিয়া বন্ধ হয়ে পৃথিবী থেকে জীবনের পসরা তুলে চলে গেলেন না ফেরার দেশে।
স্মৃতির মনিকোঠা
ব্যাক্তি জীবনে তিনি ছিলেন একজন
সরলমনা, ধর্মপ্রাণ,সমাজ সেবক,দেশ
প্রেমীক,শিক্ষানুরাগী, আর তাই তার এ
গুণাবলী আর সৎ কর্ম ও উদারপন্থী
চিন্তা চেতনার প্রাপ্তি স্বরুপ স্মৃতির
মনিকোঠায় চির অম্লান -অক্ষয় হয়ে
থাকবেন।
আজ গভীর শ্রদ্ধাভরে স্বরণ করছি
জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর
মুক্তিযোদ্ধা ” স্বপন কুমার বিশ্বাস ” কে
এবং সকলের কাছে একটাই
প্রার্থণা উনার আত্মার শান্তি
কামনায় সকলেই উনার জন্য আশির্বাদ/
দোয়া করবেন যেন উনি স্বর্গবাসী/
বেহেস্তবাসী হয়।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.