বাগেরহাটে ১৬ বছর এর অবৈধ সংসার

আছে ১৩ বছর বয়সী এক কন্যা

১০০

মোঃ ইকরামুল হক রাজিব, ব্যুরো প্রধান, খুলনা :

বাগেরহাট রামপাল উপজেলা পেড়িখালি ইউনিয়ন এর রোনজাইপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল গনি মৃধা(৪২) পিতা মৃত আব্দুল হাকিম মৃধা বাঁশতলী ইউনিয়ন এর
মোসাঃ হোসনা আরা বেগম(৩৭) পিতাঃ-শেখ আব্দুর রব, দীর্ঘ ১৫,১৬ বছর অবৈধ সংসার করে আসছে,আব্দুল গনি মৃধার অবৈধ স্ত্রী হোসনা র কাছে জানতে চাইলে তিনি
বলেন ৷আমি দীর্ঘদিন যাবৎ আমাকে বিয়ে করার জন্য বলে আসছি,কিন্তু আমাকে কোনভাবেই বিবাহ করতে ইচ্ছুক নয় শুধু বিবাহ করবে বলে আশ্বস্তকরে আসছে,আমাকে বিয়ে করছে না বিধায় আমি অন্য কোন পথ না পেয়ে
মোঃ হাবিবুর শেখ(৪৩)পিতা মৃত- শেখ দাউদ গ্রামঃ-বাঁশতলী
এর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই বলে জানান,আব্দুল গনি মৃধার অবৈধ সংসার চলাকালীন সময়ে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয় ৷
সেই সন্তানটির বয়স আনুমানিক ১৩ বছর,
নোটারি পাবলিক বাগেরহাট থেকে বিবাহ রেজিস্ট্রি করার ৫ দিনের ভিতর ২ য় স্বামী হাবিবুর রহমান কে হোসনে আরা তালাক প্রদান করে ৷বাঁশতলী ইউনিয়ন এর কালীগঞ্জ বাজার আশ্রয়ন মসজিদ এর ইমাম ও কিছু মুসল্লীর সাক্ষী সম্মুখে আব্দুল গনি মৃধার সঙ্গে বিবাহ হয় ৷
আব্দুল গনি মৃর্ধা র সঙ্গে বিবাহের ৮ থেকে ১০ দিন পরে তাকে ও তালাক প্রদান করেন এবং পুনরায় সাবেক ২ য় স্বামী হাবিবুর এর সঙ্গে বিবাহ হয় ৷এভাবে প্রায় ২ মাসের ভিতর অগণিত বার এক স্বামীর সঙ্গে তালাক দিয়ে অন্য স্বামীর সঙ্গে বিয়ে চলমান থাকে ৷
স্থানীয় পার্শ্ববতী বাসিন্দাদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন ৷হোসনে আরা অত্যান্ত খারাপ প্রকৃতির এবং দুশচরিত্র মহিলা,
পার্শ্ববর্তী বাসিন্দারা আরো বলেন ৷
আব্দুল গনি মৃধা পূর্বে ও বিয়ে করেছিল ৷আব্দুল গনি মৃধা একজন ভূমি দস্যু প্রকৃতির লোক,সরকারি জায়গা বাঁশতলী ইউনিয়ন এর বিভিন্ন স্থানে দখল করে এবং কিছুদিন হয়ে গেলে অন্যাত্র পজেসন বিক্রি করে দেয় আমরা কোন কিছু বলতে গেলে আমাদের উপর খারাপ ব্যবহার করে বলে জানান স্থানীয় বাসিন্দারা৷ এবং সরকারী বন্দোবস্তকৃত ৫০ শতক জমি অন্যত্র ঘেরের ভিতর বাৎসরিক হিসেবে লিজ দেয় আব্দুল গনি মৃধা ৷এবং জমি বিক্রি করার পর বিভিন্ন ভাবে ক্রেতাকে হয়রানি করে থাকে ৷

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.