বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক ফাউন্ডেশন এর ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ।

২৬

 

মোঃ রেশাদুল হক,
জেলা প্রতিনিধি, পটুয়াখালী।।

বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক ফাউন্ডেশন এর ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে এবং করোনা ভাইরাস মহামারী থেকে সুরক্ষা পেতে আজকে পটুয়াখালী জেলার আওতাধীন সকল উপজেলায় একসাথ মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।

এসময় পটুয়াখালীর সদর উপজেলায় বিভিন্ন বাজারে মাস্ক বিতরণ করা হয়। হযরত আবুবকর সিদ্দিক (রাঃ) কমপ্লেক্স ও লিল্লাহ বোডিং সহ পক্ষিয়া বাজার / ফতুল্লা বাজার, শরীফ বাড়ী স্টান, বাধঘাট বাজার, বসাক বাজার, পাটু-খালী বাজার, বাদুরা বাজারে কয়েক শতাধিক মানুষের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।
উক্ত কর্মসূচিতে পটুয়াখালী সদর উপজেলার সহঃপ্রধান স্বেচ্ছাসেবক “প্রকৌশলী জনাব মোঃ রেশাদুল হক” উপস্থিত থেকে মাস্ক বিতরণ করেন।।

এছাড়াও বাউফল উপজেলা সহঃপ্রধান স্বেচ্ছাসেবক এইচ এম সাইফুল ইসলাম, দশমিনা উপজেলা প্রধান স্বেচ্ছাসেবক মোঃ মনিরুল ইসলাম, রাঙ্গাবালি উপজেলা সহঃপ্রধান স্বেচ্ছাসেবক মোঃ ইমরান হোসেন, গলাচিপা উপজেলা সহঃপ্রধান স্বেচ্ছাসেবক মোঃ ইমরান হোসেন, মির্জাগঞ্জ উপজেলা প্রধান স্বেচ্ছাসেবক
এস আই সজিব মল্লিক, কলাপাড়া উপজেলা সহঃপ্রধান স্বেচ্ছাসেবক মোঃ বশির উদ্দিন, দুমকি উপজেলা প্রধান স্বেচ্ছাসেবক মোঃ কামাল হোসেনের নেতৃত্বে পটুয়াখালীর সকল উপজেলায় একসাথে মাস্ক বিতরণ এবং জনসচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করেন।

উক্ত মাস্ক বিতরণ কর্মসূচিতে সার্বক্ষনিক দিক নিদর্শনা দিয়েছেন পটুয়াখালী জেলার প্রধান স্বেচ্ছাসেবক প্রকৌশলী জনাব সাইদুল ইসলাম।

উল্লেখ যে আগামীকাল থেকে সারাদেশ ব্যাপী ৭ দিনের কঠোর লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে, এসময়ে জরুরী পণ্য পরিবহন এবং জরুরী সেবা ছাড়া সকল অফিস,আদালত, মার্কেট, দোকানপাট বন্ধ থাকিবে।

করোনার মহামারীর মধ্যে জরুরী প্রয়োজনে ঘরের বাহিরে যেতে মাস্ক পরিধান করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

উক্ত মাস্ক বিতরণ কর্মসূচিতে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ সুরক্ষার বিষয়টি চিন্তা করা হয়েছে।।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.