ফিচার প্রতিবন্ধকতা হারাতে পারেনি হামিদুলকে

রাকিবুল হাসান,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কলেজ ক্যাম্পাস মানেই সুধু আড্ডা আর খুনসুটি না। অনেক সময় অনুপ্রেরণার গল্প। তেমন অনুপ্রেরণার প্রতিক গাইবান্ধা সকরারী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং ইলেকট্রিক্যাল টেকনোলজির শিক্ষার্থী মো হামিদুল ইসলাম।

বড় ভাইদের কাছে স্নেহের হামিদ। সহপাঠীদের প্রিয় হামিদ,ছোটদের কাছে চিরচেনা অনুপ্রেরণায় ভরপুর এক বড় ভাই। হামিদুলের জন্মথেকেই বাম হাতের কুনুই থেকে নিছের অংশ নেই।তবুও থেমে নেই তার পড়াশুনা। হামিদুলের বাবা একজন গরিব কৃষক।হামিদুল ইলেকট্রিক্যাল হাউজ ওয়ারিং এর কাজ করেই নিজের পড়াশুনার খরচ চালায়।

গাইবান্ধা সদর থানা কুপতলা ইউনিয়ন দক্ষিন দূর্গাপুর গ্রামে হামিদুলের বাড়ি।হামিদুল ২০১৬ সালে ভাঙ্গামোর দ্বী মূখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৪.৬৪ নিয়ে এস এস সি পাস করেন।

হামিদুলের সাথে কথা বললে হামিদুল জানান,আমি প্রতিবন্ধী হিসাবে কারো বোঝা হতে চাই না। আমি নিজের পায়ে দ্বারাতে চাই। পরিবারের পাশে দ্বারাতে চাই।আমার মত অন্যদের মনে সাহস যোগাতে চাই। গাইবান্ধা সকরারী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীরা বলেন হামিদুল ভাই আমাদের অনুপ্রেরণা। ভাই নিজের পড়াশুনা খরচ নিজে চালায় এর থেকে আমাদের শিক্ষানেওয়া উচিত।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.