প্রয়োজন

২৪

সাগর হাসান মুক্তার

এতটা ভালােবাসার প্রয়ােজন ছিল না কখনােই,
শুধু একটু ভরসা করার মতাে দৃষ্টি চেয়েছিলাম।
আর এতাে প্রেমপত্র ও পাঠাতে হতাে না,
কিছু বেলীফুল পাঠালেই হতাে;
যেগুলাে তােমার আঙিনায় ঝরে পড়ে থাকতাে।

কেন হাটতে গিয়েছিলে?
পা দুটি নিষ্ঠুর কাটায় রক্তাক্ত করলে,
তােমাকে আমি হৃদয় পালংকেই বসিয়ে রেখেছিলাম রাতদিন।

তুমার রক্তে আমার জ্বর হল,
জ্বরে যখন পুঁড়ে যাচ্ছিলাম,
তখনাে চাইনি তুমি এসে কপালে জলপট্টি বেঁধে দাও,
চেয়েছিলাম তুমি যাতে শুনতে না পাও আমি অসুস্থ!
কারণে এ দেহটাকে এতাে যত্ন দিয়ে কি হবে বলাে?
যদি হৃদয়টাকে সুস্থ রাখতে না পারি।

অঝর শ্রাবনে যখন ভিজছিলাম,
কি প্রয়োজন ছিল হাতে হাত রাখার?
আমিতো চোখ বুজেই তুমার অস্তিত্ব অনুভব করতে পারতাম!
আমিতাে চেয়েছিলাম তােমার আঁখি নিঃসৃত দু ফোঁটা অশ্রু,
যাতে অঞ্জলি দিতে নিতে পারি আজীবন।
তবু কেন তুমি লুকিয়ে কেঁদেছিলে? বলােতাে!
কি প্রয়ােজন ছিল এতটা ভালােবাসার?
তুমিই যখন থাকবে না!

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.