পার্বত্য বান্দরবানে এমপিদের ভাগ্য নির্ধারণ মহিলা ভোটে ।

৫১

রিমন পালিত, বান্দরবান ব্যুরো।পৃথিবীতে যা সুন্দর তা অর্ধেক করিয়াছে নারী অর্ধেক করেছে নর। এই উক্তিকে সামনে রেখে পার্বত্য জেলা বান্দরবানে এমপিদের ভাগ্য নির্ধারণ হচ্ছে পুরুষের পাশাপাশি মহিলাদের ভোটে । স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ পার্বত্য বান্দরবানে নৌকার মাঝিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে মাঠে নেমেছে বান্দরবানের পাহাড়ি বাঙালি সকল নারীরা। মুখে মুখে শুধু একটাই জয়ধ্বনি নৌকা নৌকা। কোন নারী প্রার্থী না থাকলেও সকল নারীদের সমর্থন রয়েছে নৌকার মনোনয়ন প্রার্থী বীর বাহাদুর সিং এর প্রতীকে।

দিনরাত মাঠে নেমে কাজ করে যাচ্ছে পার্বত্য বান্দরবানের নারীরা। আর তাদের সকল ক্ষমতা ও নিরাপত্তার জন্য সকল কিছু ব্যবস্থা করেছে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর। জনসভায় তিনি বলেছেন আমার মা-বোনরা আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে বিদায় আমি তাদের পাশে দাঁড়ানোর সাহস পায়। এজন্য পার্বত্য বান্দরবানে যতদিন আমি নির্বাচিত হবো ততদিন নারীর সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সকল উন্নয়নমূলক কাজ করে যাব।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব বীর বাহাদুর উশৈসিং,এমপি বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার নারীর আত্মকর্মসংস্থানের মাধ্যমে তাদের ক্ষমতায়নে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। বিশেষ করে পার্বত্য চট্টগ্রামে অবহেলিত নারীকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে বর্তমান সরকার জীবনমুখী বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। এর মাধ্যমে তারা নিজেদের পরিবার, সমাজ তথা রাষ্ট্রকে একটি শক্তিশালী কাঠামোর দাড়া করাতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

প্রতিক বরাদ্দের পরের দিন থেকেই বান্দরবান জেলার ৭ টি উপজেলায় প্রচারণায় মূখর বান্দরবান ৩০০ নং আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী বীর বাহাদুর উশৈসিং এর কর্মী সমর্থকদের মাঝে।

নির্বাচনী প্রচারণার দিনে বান্দরবান জেলার সবচেয়ে দুর্গম উপজেলা থানচি থেকে প্রচারণা কার্যক্রম শুরু করেন ৩০০ নং আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

আজ ৩ জানুয়ারি নির্বাচনী প্রচারণার দিনে তিনি জেলার বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে প্রচারণা চালান ।

এসময় প্রার্থীকে ঢোল বাদ্য বাজিয়ে, ফুলের মালা দিয়ে, বরণ করে নেন পাহাড়ি বাঙালি পুরুষ নারী সকলে ।

টানা ছয়বার ৩০০ নম্বর আসনের সংসদ সদস্য ও পার্বত্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি নিজ নিজ দায়িত্ব ও কর্তব্য সুন্দরভাবে পালন ও পার্বত্য এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন বীর বাহাদুর।

এজন্য সবাই তাকে ভালোবাসে, শ্রদ্ধা করে। সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেন, পার্বত্যবাসীর ভালোবাসা আর দোয়া রয়েছে বলে টানা সাত বারের মতো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বান্দরবানে আমাকে নৌকার দায়িত্ব দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর এ বিশ্বাস আর ভালোবাসা রক্ষা করে আগামী ৭ জানুযারি আবার এ আসনে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করব। আর এবারের বিজয়ে সবাই আওয়ামী লীগের পাশে থাকবে, এটাই প্রত্যাশা।

বীর বাহাদুর উশৈসিং ১৯৯১ সালে ৩০০ নম্বর আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে প্রথম বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

এরপর ১৯৯৬ সালে, ২০০১ সালে, ২০০৮ সালে, ২০১৪ সালে ও ২০১৮ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

সর্বশেষ ২০১৯ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন বীর বাহাদুর।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.