নেইমার এখন সেরাদের কাতারে

৪৬

ইমরান হোসেন পিয়াল,খেলা ডেস্কঃ নেইমার ডি সিলভা সান্তোস জুনিয়র। বর্তমান ফুটবল বিশ্বে মেসি,রোনালদোর পর সবথেকে বেশি যে নামটার চর্চা হয়। ব্রাজিলিয়ান দের চোখের মধ‍্যমণি সে।

যদি প্রশ্ন করা হয় রোনালদিনহোর পর বিশ্বের সেরা ড্রিবলার কে?নিঃসন্দেহে নেইমারের নামটাই সবার উপরে থাকবে।তার চোখ ধাঁধানো সব ড্রিবলিং মানুষকে প্রতি মুহুর্তে ফুটবল উপভোগ করতে শেখায়।

যখন থেকে ফুটবল বুঝতে শিখেছি তখন থেকেই নেইমার নামক এক নক্ষত্রের জ্বলজ্বলানি আমার নজর কেড়েছে।মুগ্ধ হতে হতে মানুষটার প্রেমে পড়ে গেছি।

অনেকেই তাকে অভিনেতা বলে উপহাস করে থাকে।তবে প্রত‍্যেকটা ব্রাজিলিয়ান ফ‍্যানের কাছে নেইমার নামক অভিনেতাটা একটা আবেগের নাম।তাই তো সে গোল করলে আমরা চিৎকার করে গলা ফাটাই।তার পরাজয়ে কাঁদতে কাঁদতে বালিশ ভেজাই।

আমার এখনো মনে আছে ২০১৬ এর অলিম্পিকে গোল করার পর নেইমারের অঝোর ধারার কান্না।সে কাঁদতে কাঁদতে হয়তো বলতে চাইছিল,যদি আমি থাকতাম তবে কখনোই আমার দলকে ৭ গোলের লজ্জায় ডুবতে দিতাম না।

আজকে মানুষটার জন্মদিন।পৃথিবীর এক কোণ হতে অজস্র ভালোবাসা হে প্রিয় নেইমি।জানি কখনোই তা তোমার কাছে পৌঁছাবে না।তবে হৃদয়ের আহ্বান তুমি নিশ্চই শুনবে।অনেকটা ভালো থেকো।

তোমার কাছে একটাই প্রত‍্যাশা,সোনালী ট্রফিটা তোমার হাতে একটিবারের মতো দেখে আমার চোখ জুড়াতে চাই।পারবে না এই আশাটুকু বাস্তবে রূপ দিতে?

জানি তুমি পারবে।কারণ, আমরা বিশ্বাস করি, নেইমাররা হারে না,ওরা হারতে পারে না,ওরা হারতে শেখে নি।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.