নুতন বার্তা নিয়ে অপেক্ষার প্রহর গুনছেন যারা

বিনোদন ডেস্কঃ
নতুন সূর্যোদয়ের মধ্য দিয়ে স্বপ্ন আর প্রত্যাশার মাঝে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন বুনেছে শোবিজ সংশ্লিষ্টরা। সদ্য বিদায় বছরে বেশ কয়েক জন নবাগত শিল্পীর অভিষেকের কথা থাকলেও করোনায় আটকে যায় তাদের অভিষেক। থমকে যায় নিয়মিত শিল্পীদের কর্মযোগ্য। গত বছর অভিষেক না হলেও পরিবেশ পরিস্থিতি ঠিক থাকলে চলতি বছর অভিষেক হতে পারেন জাহারা মিতু, প্রার্থনা ফারদিন দীঘি, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, নিশাত নাওয়ার সালওয়া। প্রতি বছরই ঢাকাই সিনেমায় নতুন নায়ক-নায়িকার অভিষেক হয়। কেউ কেউ দর্শকের মন জয় করে শোবিজে নিজের পাকাপোক্ত একটি অবস্থান করেন কেউবা ব্যর্থতা নিয়ে হারিয়ে যান। নুতন যারা আগমনীর বার্তা নিয়ে অপেক্ষার প্রহর গুনছেন তাদের নিয়েই আমাদের এবারের আয়োজন।

সালওয়াঃ নিশাত নাওয়ার সালওয়া হালের মডেল-অভিনয়শিল্পী। মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় হয়ে নজর কাড়েন তিনি। এরপর কাজ করেন চলচ্চিত্রে। এরইমধ্যে সালওয়া শেষ করেছেন ‘স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা’ ও ‘বীরত্ব’ ছবির কাজ। নির্মাণাধীন অভিনেত্রী কবরী পরিচালিত সরকারি অনুদানের সিনেমা ‘এই তুমি সেই তুমি’। গত বছরই বড় পর্দায় সালওয়ার অভিষেক হবার কথা ছিল তবে করোনায় আটকে যায় অভিষেক। সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি বছর তার দুটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। চলতি বছর সালওয়া হিসেব করে আগাতে চান। এরইমধ্যে নতুন ছবির প্রস্তাব পেলেও একটু বুঝে শুনে চুক্তিবদ্ধ হবেন। সংখ্যা না বাড়িয়ে মানসম্মত কাজ করবেন। সালওয়া আত্নবিশ্বাসী তার অভিষেক ছবিটি দর্শক গ্রহণ করবে। নিজেকে নিয়ে যেতে চান অনন্য উচ্চতায়।

জাহারা মিতুঃ মডেল-অভিনেত্রী জাহারা মিতু ২০১৯ সালে শাকিব খানের বিপরীতে জুটি হয়ে শুরু করেন বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘আগুন’ সিনেমার কাজ। রুপালি পর্দায় অভিষেকের অপেক্ষায় এ সুন্দরী নায়িকা। মিতু বলেন, আমরা ভয়ানক একটি বছর কাটিয়েছি। বছর শেষে যে বেঁচে আছি এটাই বড় পাওয়া। করোনার সময় কলকাতায় ছিলাম শূটিংয়ে। যেদিন সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হলো সেদিনই দেশে ফিরি। দেশে ফিরে আমি আমার পরিবারের করো সঙ্গে দেখা করিনি। কোয়ারেন্টাইনে ছিলাম। আমার মা আমাকে দূর থেকে খাবার দিয়েছেন। আপনজনরা আমাকে বাইরে থেকে দেখে গেছেন। সেসব দৃশ্য মনে পড়লে এখনো বিভীষিকাময় মনে হয়। সেই দিনগুলো যেন আর জীবনে না আসে। নতুন বছর নিয়ে কোনো পরিকল্পনা নেই মিতুর। তবে ইচ্ছা আছে ভালো কিছু কাজের সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করার। এমন কিছু কাজ করতে চান, যা আলাদা পরিচয় বহন করবে। গত বছর শাকিব খানের সাথে জুটি বেঁধে ‘আগুন’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করেন জাহারা মিতু। ছবিটির বেশ কিছু কাজ বাকি। ছবির প্রযোজক ক্যাসিনো কাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার রয়েছেন। তারপর থেকে ছবিটি থমকে আছে। কবে নাগাত শুরু হবে শূটিং তা জানেন না মিতু। এদিকে প্রথম ছবি শেষ না হতেই ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা দেব এর সাথে জুটি বেঁধে অভিনয় করেন তিনি। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ঈদুল ফিতরে ‘কমান্ডো’ ছবিটি মুক্তি পাবে।

দীঘিঃ ঢাকাই চলচ্চিত্রের নবাগত নায়িকা প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। শিশুশিল্পী থেকে তারকাখ্যাতি পেয়ে রাতারাতি দর্শকপ্রিয়তা পান তিনি। সম্প্রতি সিনেমায় নায়িকা হিসেবে নাম লেখিয়েছেন তিনি। দীঘির অভিষেক সিনেমা হতে যাচ্ছে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’। সিনেমাটির গল্প গড়ে উঠেছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে। এছাড়া এ বছরই মুক্তি পাবার কথা রয়েছে দেলোয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমাটি।

জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীঃ মিস ওয়ার্ল্ড মুকুট জয়ী জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। নায়িকা হিসেবে চুক্তিবদ্ধ প্রথম চলচ্চিত্র ‘মিশন এক্সট্রিম’। ছবিটি গত বছর মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও করোনায় পিছিয়ে যায়। তবে চলতি বছর ঈদে সিনেমাটি আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে। এ ছবি দিয়েই অভিষেক হবেন তিনি। এছাড়াও মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘আদম’ সিনেমাটি। তিনি জানান, নতুন বছর ভালো কিছুর প্রত্যাশা করছি। ২০২০ এর মতো যেন না হয়। আগামী ঈদে ‘মিশন এক্সটিম’ মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। ছবিটি নিয়ে অনেক প্রত্যাশা। এছাড়া ‘আদম’ ছবিটিও চলতি বছরই মুক্তি পাওয়ার কথা। আদমের তিন দিনের কাজ বাকি। ময়মনসিংহ শূটিং চালাকালীন সময় করোনায় পিছিয়ে যায় ছবিটি। ২২ মার্চ শূটিং করে ঢাকায় ফেরার কথা থাকলেও ১৮ মার্চ ফিরতে বাধ্য হই। এ বছরই ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা। সবাই চাই বিশ্ব থেকে দ্রুত যেন করোনা চলে যায়। সবাই আশাবাদী ছিল ২০২০ চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রির জন্য ঘুর দাঁড়ানোর বছর হবে। হঠাৎ করোনায় সব কিছু এলোমেলো করে দেয়। বড় বাজেটের বেশ কয়েকটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। এ বছর প্রত্যাশা করি আবার ঘুরে দাঁড়াতে চেষ্টা করবে চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি। শীঘ্রই নতুন ছবির খবর জানাবেন ঐশী। এরই মধ্যে একটি ছবির ব্যাপারে কথা হয়েছে। গল্প ও চরিত্র পছন্দ করেছেন তিনি। সবকিছু ঠিক থাকলে ছবিটি করার আগ্রহ রয়েছে। কিভাবে সময় কাটছে? সুস্থ আছি এটাই সবচেয়ে বড় কথা। অনেক বেদনার খবরের মাঝেও আল্লাহ পরিবার পরিজন নিয়ে ভালো রেখেছেন। এ সময় বই পড়ে, নাটক-সিনেমা দেখে সময় পার করছি। খুব প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছি না।

শাহনাজ সুমি ও শাহ হুমায়রা সুবাহঃ মডেল-অভিনয় শিল্পী শাহ হুমায়রা সুবাহ অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় আছে রফিক শিকদারের ‘বসন্ত বিকেল’, মোহাম্মদ আসলামের ‘বদলা’ ও ‘সমাধান’দেওয়ান নাজমুল পরিচালিত‘তোরে কত ভালোবাসি’। নির্মাণাধীন আব্দুল মান্নান পরিচালিত ‘মন বসেছে পড়ার টেবিলে’। এর যে কোন একটি ছবি দিয়ে চলতি বছরই বড় পর্দায় অভিষেক হবেন তিনি।পাপপুণ্য ছবি দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক হবেন ছোটপর্দার অভিনেত্রী শাহনাজ সুমি।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.