নির্বাচনী আমেজে সরগরম থাকছে নারায়ণগঞ্জ সিটিজুড়ে নির্বাচনী উত্তাপ

৮০

রাসেল আদিত্য, জেলা প্রতিনিধি,নারায়ণগঞ্জ:

কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী ডিসেম্বরের
ভেতর দেশের সব ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন হলে পুরো দেশজুড়ে স্তিমিত হয়ে পড়বে নির্বাচনী আবহ।কিন্তু
নারায়ণগঞ্জ ঠিকই মেতে থাকবে নির্বাচনী আমেজে অন্ততঃ মধ্য বা জানুয়ারীর তৃতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত।আগামী মধ্য ফেব্রুয়ারীতে মেয়াদ শেষ হবার আগে এই কমিশনের শেষ নির্বাচন হবে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন।
আগামী জানুয়ারীর ২য় বা ৩য় সপ্তাহে নির্বাচন করার লক্ষ্য নিয়েই এগোচ্ছে কমিশন।ধারণা করা হচ্ছে ২৭শে নভেম্বর তফসিল ঘোষণা হতে পারে। আর আসন্ন নির্বাচনে নিজের প্রার্থীতা জানান দিতে ইতিমধ্যে নগরী জুড়ে পোস্টার-ব্যানার-ফেষ্টুনে সয়লাব করে ফেলেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা।একই সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সমানতালে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা।মূলতঃ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীদের তৎপরতাই দৃশ্যমান সিটির সর্বত্র।
মেয়র পদের জন্য তেমন প্রচারনা না থাকলেও পর্দার আড়ালে খেলা থেমে নেই।কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত নিয়ে বিএনপি দোদুল্যমান অবস্থায় আছে। আর আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভীর প্রার্থীতা অনেকটা নিশ্চিত বলে দক্ষিনপন্থিরা দাবি করলেও তা মানতে নারাজ উত্তরের অনেক হেভিওয়েট নেতারা। যদিও নিদৃষ্ট কোন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেনি শামীম ওসমান ব্লক।তাঁরা মেয়র
পদে চমক আছে বললেও বিশ্লেষকদের
মতে গত দুই মেয়াদে মেয়র আইভীর ব্যাপক উন্নয়ন কাজ তাঁকে আকাশচুম্বী
জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে। আর তাই শেষ পর্যন্ত আইভীই হবেন আওয়ামীলীগের প্রার্থী।তবে নাটকীয় ভাবে বিএনপি যদি নির্বাচনে আসে,তবে
বদলে যাবে মেরুকরণ।শামীম বলয়ের সঙ্গে চলমান তিক্ততা জিইয়ে রেখে আইভীর পক্ষে জিতে আসা কঠিন হয়ে উঠবে বলেই ধারণা রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।শেষ পর্যন্ত পরিস্থিতি কি দাঁড়ায় তা দেখতে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.