নাচোল পৌর নির্বাচনে নৌকার সম্ভাব্য প্রার্থী রয়েল,নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন পৌরসভার পরিকল্পনা

মোঃ শরিফুল ইসলাম (মিল্টন),নাচোল, চাঁপাইনবাবগঞ্জঃ
আগামী ডিসেম্বর-জানুয়ারীতে আসন্ন পৌর নির্বাচনে
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল পৌরসভায় দেশের ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ থেকে মেয়র পদে অন্যান্য প্রার্থীদের তুলনায় দলীয় মনোনয়নে এগিয়ে থেকে নৌকা প্রতীকের সম্ভাব্য প্রার্থী, জেলা পরিষদের সদস্য, নাচোল উপজেলা আ.লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি ও নাচোল পৌর যুবলীগের সদস্য রয়েল বিশ্বাস।

মেয়র নির্বাচিত হয়ে দ্বিতীয় সাড়ির নাচোল পৌরসভাকে দেশের প্রথম সাড়ির পৌরসভায় উন্নীত করা, সকল নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন আধুনিক, মডেল ও বসবাসযোগ্য পৌরসভা উপহার দিতে চান নাচোল উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রয়েল বিশ্বাস। এছাড়াও নিজের সৃষ্টিশীল কিছু বিশেষ পরিকল্পনা দিয়ে সাজাতে চান পানি সরবরাহ ও নিষ্কাশন, সৌন্দর্যবর্ধিত এবং কৃষিভিত্তিক বিভিন্ন সুবিধা সম্পন্ন নাচোল পৌরসভাকে। আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে দীর্ঘদিন থেকেই ছুটছেন জনসাধারণের দ্বারে দ্বারে এবং নাগরিকদের বিভিন্ন সমস্যা ও দুর্ভোগের খোঁজ নিচ্ছেন জেলা পরিষদের সদস্য, তরুণ প্রজন্মের আওয়ামীলীগ নেতা রয়েল বিশ্বাস।

দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে রয়েল বিশ্বাস বলেন, গত ১৫ বছর ধরে আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের সাথে নাচোলে রাজনীতি করছি। গতবার নাচোল পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলাম এবং তৃণমূলের ভোটে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করি। পরে দল যেই প্রার্থীকে দলীয় মনোনয়ন দেয়, মনোনীত প্রার্থী তথা নৌকার পক্ষে কাজ করেছি। নৌকার বিজয় ছিনিয়ে আনতে রাতদিন পরিশ্রম করেছি এবং শেষে নৌকারই জয় হয়েছে। গত ১৫ বছরের আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে সবসময় গণমানুষের সাথে ছিলাম এবং আগামীতেও থাকবো। তাই আগামী নাচোল পৌর নির্বাচনে দলের একজন সক্রিয় ও পরীক্ষিত কর্মী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে আমি এর নায্য দাবিদার বলে মনে করি। দল আমাকে মনোনয়ন দিলে জনসাধারণের মতামতে নাচোলে নৌকার জয় হবেই ইনশাআল্লাহ।

বর্তমানে জেলা পরিষদের সদস্য হয়েও নাচোল পৌরসভায় মেয়র পদের প্রার্থী হওয়ার কারন জানতে চাইলে তিনি আরো জানান, স্থানীয় সরকার বিভাগের সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে জেলা পরিষদ। ভেবেছিলাম এখানে নির্বাচিত হলে নিজের কাজের আওতা বাড়বে, অধিক সংখ্যক জনসাধারণের সাথে মিশতে পারবো এবং তাদের দুর্ভোগ-দুর্দশা দূর করতে কাজ করতে পারবো। কিন্তু নির্বাচিত হয়ে দেখলাম, জনগণের প্রত্যাশা-আকাঙ্খা পূরণ করতে পারছি না। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস মহামারীতে কর্মহীন, খেটে-খাওয়া অসহায় দরিদ্র মানুষের হাহাকার আমাকে বেদনা দিয়েছে। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হয়েও সেভাবে জনগণের পাশে দাঁড়াতে পারিনি। যতটুকু করেছি, তা সম্পূর্ণভাবে ব্যক্তিগত উদ্যোগে। মেয়র নির্বাচিত হতে পারলে নাচোল পৌরবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করতে সার্মথ্য হবো।

আওয়ামীলীগ নেতা রয়েল বিশ্বাস নাচোল পৌরসভাকে ঘিরে নিজের বিশেষ পরিকল্পনার কথা জানান। তিনি বলেন, বরেন্দ্র অঞ্চল হওয়ায় নাচোল প্রতিবছর ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, একারনে আগামীতে আমরা পানি সংকটে পড়বো। তাই পানির অপচয় রোধ ও সুষ্ঠ বন্টনে এই বিশেষ পরিকল্পনা করেছি। সেক্ষেত্রে নাচোল পৌরসভার চারদিকে ৫০০-১০০০ মিটার সীমানা বাড়িয়ে এই পরিকল্পনা সাজাতে চাই।

নাচোল পৌরসভা ঘিরে একটি ক্যানেল আছে, যাতে বর্ষা মৌসুমে পানি সংরক্ষণ করা হয় এবং এই পানিতেই চাষাবাদ হয়। কিন্তু দীর্ঘদিন সংস্কার কাজ না করার কারনে ও মাটি পড়ে ক্যানেলটি বন্ধ হয়ে গেছে। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে পুরো পৌরসভাকে ক্যানেল দ্বারা বেষ্টিত করবো এবং ক্যানেলের চারপাশ দিয়ে রাস্তা থাকবে। এমনকি ব্যবহৃত পানি ক্যানেলে পড়বে, এই পানিই আবারো শোধন করে ব্যবহার ও প্রয়োজনপ কৃষি কাজে ব্যবহার করা যাবে। এই ক্যানেলের সঠিক ব্যবহার হলে পানির স্তর কমবে না বলে জানান তিনি।

নিজের উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে রয়েল বিশ্বাস বলেন, এই ক্যানেলের কাজ সম্পন্ন করতে পারলে শুধুমাত্র পানির সঠিক ব্যবহার হবে তাই নয়, এমনকি সৌন্দর্যবর্ধন ও বিনোদন কেন্দ্র গড়ে উঠবে। আমি চাই নাচোল পৌরসভাকে দ্বিতীয় সারী থেকে প্রথম সারীতে উন্নীত করতে। বর্তমানে নাগরিকরা ট্র্যাক্স দিতে চায় না, তাদের মধ্যে অনীহা রয়েছে। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে নাগরিকদের এতো সুবিধা দিবো, যে তারায় ট্র্যাক্স দিতে আসবে। আমি বিশ্বাস করি, জনগণের ট্র্যাক্স দিয়েই আধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন পৌরসভা গড়ে তুলতে পারবো ইনশাআল্লাহ।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.