নলছিটিতে কিশোরীর আত্মহত্যা

মোঃ আল ইমরান, ঝালকাঠি সদর উপজেলা: ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার রানাপাশা গ্রামের পছন্দের ছেলের সঙ্গে বিয়ে না দেওয়ায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে জান্নাতুন নেছা ইমি (১৪) নামে এক কিশোরী। মঙ্গলবার বিকেলে বাড়ির ভেতর থেকে তাঁর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ইমি নলছিটি উপজেলার রানাপাশা গ্রামের মৃত মাসুদ মাঝির মেয়ে। সে রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অস্টম শ্রেণিতে পড়তো।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, প্রতিবেশী খালেক মাঝির ছেলে সুমন মাঝির (২২) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল ইমির। মেয়ের পরিবার এ সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় গত বছরের ১২ ডিসেম্বর তাঁরা গ্রাম থেকে পালিয়ে অন্যত্র চলে যায়। মেয়ের মা ফারজানা বেগম এ ঘটনায় গত ১৮ ডিসেম্বর নলছিটি থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। এতে প্রেমিক সুমন মাঝি, তাঁর বাবা, বড়ভাই ও দুই ভগ্নিপতিকে আসামি করা হয়। মামলার পর ইমিকে সুমন মাঝি বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় । পরবর্তীতে একাধিকবার ইমি তাঁর পরিবারকে সুমনের সঙ্গে বিয়ে দিতে বললেও পরিবার বয়ওসর কারনে রাজি হয়নি। এক পর্যায়ে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে ইমি মঙ্গলবার দুপুরে ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।

নলছিটি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল হালিম তালুকদার বলেন, বিকেলে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। বুধবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। পূর্বের অপহরণ মামলায় সুমন মাঝি পলাতক রয়েছে ।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.