দেশে আর্তমানবতার সেবায় নিয়োজিত Blood Donation Society 2010(BDS)

৪২

মাহাদি সরকার,সদর,ময়মনসিংহঃ “মানবতার টানে,ভয় নেই রক্তদানে” এই স্লোগান কে সামনে রেখে ২০১০ সাল থেকে আর্তমানবতায় কাজ করে যাচ্ছে Blood Donation Society 2010(BDS).

একদল সচেতন তরুণ-তরুণী নিয়ে ২০১০ সালের জানুয়ারী মাসে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন মোঃ আমিনুল ইসলাম খাঁন। ১০বছর আগে যাত্রা শুধু করা সংগঠনটির বর্তমানে সারাদেশ তাদের নিয়মিত সদস্য ২০ হাজার অতিক্রম করেছে। এ সংগঠনটি প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও সাধারণ জনগণদের বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে থাকে। এ পর্যন্ত বাংলাদেশের বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, গ্রাম ও বিভিন্ন উৎসব গুলোতে বিডিএস এর বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে প্রায় ২২,০০০ হাজারের বেশি মানুষদের তাদের রক্তের গ্রুপ জানতে সক্ষম হয়েছে।

বিডিএস এর প্রধান এডমিন জনাব, নাঈম বলেন আমরা অনলাইন ও অফলাইনের মাধ্যমে মানবতার কল্যানে সংগঠনের প্রতিটি সদস্য কাজ করে থাকেন। আমরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে মেডিক্যাল ক্যাম্প, রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ও রক্তদান করে আসছি। সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই আমরা সমাজের মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। বর্তমানে বিডিএস এ নানা পেশার মানুষ স্বেচ্ছায় কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের লক্ষ্য প্রতিটি পরিবারে রক্তদাতা তৈরি করা। বর্তমানে বিডিএস এর ফেইসবুক গ্রুপে ৪৩ হাজার + সদস্য রয়েছে।

জরুরি মূহুর্তে সংগঠনটির সদস্যরা প্রতি মাসে গড়ে প্রায় ২০০+ ব্যাগ রক্ত বিনামূল্যে প্রদান করে যাচ্ছে। বিডিএস এর স্বেচ্ছাসেবীরা প্রতিদিন বিভিন্ন জেলায় স্বেচ্ছায় রক্তদান, বিভিন্ন স্কুল, কলেজে ফ্রী ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় সহ সাধারণ মানুষকে রক্তদান বিষয়ে সচেতন করে আসছে। জরুরি রক্তের প্রয়োজনে বিডিএস স্বেচ্ছাসেবীরা সারাদেশে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

Blood Donation Society 2010(BDS) এর প্রতিষ্ঠাতা জনাব, আমিনুল ইসলাম খাঁন দৈনিক সাহসী কন্ঠকে বলেন, আর্তমানবতায় মানুষের সেবায় এ সংগঠনের প্রতিটি সদস্য কাজ করে থাকেন। আমরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে আমরা রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ও রক্তদান করি । সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই আমরা সমাজের মানুষের সেবা করে যাচ্ছি। বর্তমানে এই বিডিএস এ নানা পেশার মানুষ স্বেচ্ছায় কাজ করছেন। রক্তদানের পাশাপাশি বিডিএস এর সদস্যরা সামাজের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের লক্ষ্য প্রতিটি পরিবারেই একজন রক্তদাতা তৈরি করা। রক্তের অভাবে যেন আর একটি প্রাণ ও ঝরে না যায়।

আমি দৈনিক সাহসী কন্ঠের মাধ্যমে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, বর্তমানে আমাদের বিডিএস এর সকল সদস্যদের দাবী “রক্তদানের সচেতনতায় পাঠ‍্য বইয়ে অধ‍্যায় চাই” আমরা মনে করি যদি রক্তদানের সচেতনতা নিয়ে পাঠ‍্য বইয়ে একটি অধ‍্যায় থাকে তাহলে রক্তদানের উপকারিতা সমন্ধে হাজারো তরুণ-তরুণী অবগত হতে পারবে। যদি আমরা রক্তদানে তরুণদের উৎসাহিত করতে পারি তাহলে রক্তের অভাবে আর একটা প্রাণ ও আমরা ঝরতে দিব না ইনশাআল্লাহ।

বর্তমানে সংগঠনটির প্রধান এডমিন জানাব, নাঈম সহ ইমরান হোসাইন সাব্বির,ইমরান আফ্রিদি, সিহাব,সন্জয় সরকার, তারিকুল, রুমান হোসাইন হৃদয়, জহিরুল ইসলাম,নুসরাত মরিয়ম,সফিক ইসলাম,মুওদুদ আহামেদ সম্রাট, হাসিবুর রহমান, এবি সিদ্দিক, রাব্বি, এডঃ বকুল মিয়া,শাহীন আহামেদ, শিমু বিনতে আজিজ, মাহাদী, তানজিল,মাহমুদুল হাসান,আফাজ্জল, সজীব আহামেদ তোফায়েল আহামেদ, চমক, ,মেহেদি হাসান মৃধা, মিজানুর রহমান, কাওসার, আশিক,আবেদ আলী ও মাসুম-বিন মুজিব সার্বক্ষণিক সক্রিয় থেকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছেন।

স্বেচ্ছায় রক্তদান ও বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ছাড়াও এ সংগঠনের সদস্যরা রক্তদানে মানুষদের উৎসাহিত করে থাকেন। এছাড়া গর্ভবতী মায়েদের রক্তের প্রয়োজন হলে বা জানলে তারা দুইজন রক্তদাতা গর্ভবতী নারীর জন্য প্রস্তুত রাখেন।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.