ডোমারে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

২০

সিহাব হাচান শাসন ডোমার নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব-১৭, বালক) এর নীলফামারীর ডোমারে উপজেলা পর্যায়ের ফাইনাল খেলা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের আসরে বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন গতবারের রানার্সআপ পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়নকে পরাজিত করে শিরোপা জয় করেছে।

বুধবার (২৫শে মে) বিকাল ৫টায় উপজেলার ডোমার বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলায় শক্তিশালী বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের সাথে ১-১ গোলের ব্যবধানে ড্র করে গতবারের রানার্সআপ আরেক শক্তিশালী দল পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়ন। পরে ট্রাইবেকারে ৭-৬ গোলের ব্যবধানে পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়নকে পরাজিত করে শিরোপার স্বাদ নিয়েছে বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন।

হাইভোল্টেজ ফাইনাল ম্যাচের প্রথমার্ধে গোলশূন্য থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়নের আক্রমণ ভাগের খেলোয়াড়ের কর্নার কিক থেকে মাথা ছুঁইয়ে এক গোলে এগিয়ে যায় পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়ন। তার কিছুক্ষণ পরেই বোড়াগাড়ীর আক্রমণ ভাগের খেলোয়াড় লিওনের এসিস্টে আরেক ফরোয়ার্ড সাগর চন্দ্রের পায়ের নৈপুণ্যে বল জালে পৌঁছিয়ে সমতা আনে বোড়াগাড়ী। এতে ১-১ গোলে ড্র হওয়ায় ট্রাইবেকারে খেলা গড়ায়।

ট্রাইবেকারে ৫টি করে পেনাল্টি শ্যুট আউটে দু’দলের গোলকিপারের ১টি করে কিক রক্ষা করায় ৪-৪ গোলে সমতায় আবারও ৩টি পেনাল্টি শ্যুট আউটের সিদ্ধান্ত নেয় রেফারী। পরেরবার বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন ৩টি কিকের ৩ টিতেই গোল করতে সক্ষম হয় এবং পাঙ্গা মটুকপুরের ৩টি কিকের ১টিতে বোড়াগাড়ীর গোলরক্ষক তোহা’র দুর্দান্ত সেইফে জয় পায় বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন।

ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রমিজ আলম’র সভাপতিত্বে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে চাম্পিয়ন দলের হাতে ট্রফি ও মেডেল তুলে দেন ডোমার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ। এসময় খেলোয়াড়দের প্রত্যয়ন পত্র তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

এবারের আসরে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের ফরোয়ার্ড রিফাত ইসলাম লিওন, সেরা গোলদাতা নির্বাচিত হয়েছেন বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের আরেক ফরোয়ার্ড সাগর চন্দ্র ও সেরা গোলকিপার নির্বাচিত হয়েছেন বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের গোলরক্ষক তোহা ইসলাম।

সাবেক ফুটবলার মেহেদী হাসান মুক্তি’র সঞ্চালনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন—ডোমার উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মালেক সরকার, ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম, ৭নং বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আমিনুল ইসলাম রিমুন, ৬নং পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আব্দুল হাকিম ভুট্টো, ৫নং বামুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. মমিনুর রহমান, ৮নং ডোমার সদর ইউপি চেয়ারম্যান মো. মাসুম আহম্মেদ, ৯নং সোনারায় ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম ফিরোজ চৌধুরী, ডোমার নাট্য সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সহিদার রহমান মানিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. গোলাম মোস্তফা, ডোমার প্রেসক্লাবের সভাপতি আসাদুজ্জামান চয়ন, বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের উপজেলা সভাপতি জাবেদুল ইসলাম সানবীম প্রমূখ।

টুর্নামেন্ট জুড়ে রেফারী হিসেবে সুষ্ঠু ও নিখুঁতভাবে খেলা পরিচালনার দায়িত্ব পালন করেন—সাবেক ফুটবলার মো. কবির হোসেন, আবু বক্কর সিদ্দীক, নিয়াজ মোরশেদ ও জীবন ইসলাম। এছাড়া ধারাভাষ্যকার হিসেবে খেলার সঞ্চালনা করেন—জাবেদুল ইসলাম সানবীম, মেহেদী হাসান মুক্তি ও বকুল ইসলাম।

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট পরিচালনা উপ-কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রমিজ আলম বলেন, এবারের আসরে উপজেলার মোট ১১টি দল অংশগ্রহণ করে। এরমধ্যে ২টি শক্তিশালী দল বোড়াগাড়ী ও পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়ন ফাইনালে সুনিপুণ দক্ষতায় দর্শকদের মাতিয়ে রেখে জমজমাট খেলা উপহার দিয়েছে। খেলা পরিচালনায় রেফারীগণ ও টুর্নামেন্ট পরিচালনা উপ-কমিটি সদস্যরা সুন্দরভাবে পরিচালনায় সহযোগিতা করার জন্য আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। এছাড়া আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

ফুটবলের জনপ্রিয়তা বেশি হওয়ায় ফাইনাল খেলায় প্রচুর লোকসমাগম ঘটে। উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে অটো ইজিবাইক, অটোভ্যান, মোটরসাইকেল যোগে খেলা দেখতে আসা ফুটবল প্রেমী দর্শকদের আনন্দোচ্ছ্বাসে খেলোয়াড় ও আয়োজকদের স্বার্থকতা আরও কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ই মে (বুধবার) নীলফামারীর ডোমারে উপজেলা পর্যায়ের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২ এর পর্দা উন্মোচিত হয়। এছাড়া গত আসরের চাম্পিয়ন দল ছিল ডোমার পৌরসভা ও রানার্সআপ দল ছিল পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়ন।

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.