টুঙ্গিপাড়ায় জায়গা দখল করতে বাড়িঘর ভাঙচুর ও এক মহিলাকে মারধর

২২৯

শান্তনু রায়, জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জঃ

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জায়গা দখল করতে বাড়িঘর ভাঙচুর ও এক মহিলাকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। আহত মহিলা বিনা আক্তার (৪৫) বর্তমানে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শনিবার সকালে উপজেলার বাঁশবাড়িয়া গ্রামে বাড়িঘর ভাংচুর ও মহিলাকে মারধরের ঘটনা ঘটে।
চিকিৎসাধীন বিনার ভাই উজ্জ্বল ফকির বলেন, প্রায় ৫০ বছর ধরে ঝনঝনিয়া মৌজার এসএ ৮১৩ ও বিআরএস ২০৫৫ দাগে আমরা বসবাস করে আসছি। আমার দাদার মোট ২১ শতাংশ জমির ৫ জন অংশীদার। সেই হিসাবে আমার চাচতো ভাই সাঈদ ফকির ৪.২০ শতাংশ জমি ভাগে পাবে। কিন্তু সে ২০১৯ সালে গোপনে আতিয়ার শেখ নামের এক ব্যক্তির কাছে পুরো ২১ শতাংশ জমি বিক্রি করে দেয়। পরে জায়গা পেতে আতিয়ার শেখ গোপালগঞ্জ আদালতে উচ্ছেদ মামলা করে। সেই মামলা চলমান থাকা অবস্থায় আতিয়ার বাঁশবাড়িয়া গ্রামের প্রভাবশালী জাহাঙ্গীর, মিরাজ, মাসুম ও মুরাদ তালুকদার সহ ৪ জনের কাছে ঐ ২১ শতাংশ জায়গা বিক্রি করে। এরপর শনিবার সকালে বসতবাড়ির জায়গা দখল করতে ডুমুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কবির তালুকদারের নির্দেশে জাহাঙ্গীর, তার ছেলে প্রিন্স, বাবু, মিরাজ, মাসুম তালুকদার সহ প্রায় ৪০ জন লোক আমাদের বাড়িতে হামলা চালায় ও ভাঙচুর করে। এছাড়া ভাই আরাফাতকে মারধর ও বোন বিনাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। তাই আমরা এ ঘটনার সঠিক বিচার চাই।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিনা আক্তার বলেন, বাড়ি দখল করতে ভাংচুর করার সময় আমি ও আমার ভাই বাধা দিলে জাহাঙ্গীর ও তার ছেলেসহ অনেকে আমাদের মারধর করে। একপর্যায়ে জাহাঙ্গীর দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমার মাথায় আঘাত করে।
অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর তালুকদার দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসার কথা হচ্ছে। আমি একটু ব্যাস্ত আছি। আপনাদের সাথে সাক্ষাতে কথা বলবো এই বলে কলটি কেটে দেন।
এবিষয়ে ডুমুরিয়া ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান কবির আলম তালুকদার ভুক্তভোগীদের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এরকম কোন আমি নির্দেশ দেই নাই। মূলত ওই সম্পত্তির ৪ জন মালিক সকালে জায়গা মাপামাপি করতে যায়। তখন বিনা ও তার ভাইয়েরা বাধা দিলে তাদের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। কিন্তু কাউকে মারধর করা হয়নি।
টুঙ্গিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) তন্ময় মন্ডল বলেন, মারামারি বা ভাংচুরের বিষয়ে কোন পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.