টাংগাইলে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা , প্রেমিক উধাও।

২১

ডেস্ক রিপোর্ট :
টাংগাইলের কালিহাতিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা, প্রেমিক উধাও।
ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী জানায়, একই স্কুলে পড়ালেখার সুবাদে প্রায় তিন বছর আগে টাংগাইলের কালিহাতি উপজেলার আরজু মিয়ার ছেলে লিমনের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত বছররের জানুয়ারিতে প্রথম লিমন তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করতে বাধ্য করে। এরপর থেকে প্রতিনিয়তই তাদের শারীরিক মেলামেশা চলতে থাকে।কয়েকদিন আগে হঠাৎ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী অসুস্থ হলেও বিষয়টি পরিবারের কাছে গোপন রাখে।
এদিকে, দিন দিন স্কুলছাত্রীর শারীরিক পরিবর্তন দেখা দেয়ায় পরিবাবের লোকজন গত বৃহস্পতিবার তাকে শারীরিক পরীক্ষা করতে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার পরীক্ষা করে বলেন, সে অন্তঃসত্ত্বা। পরে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী প্রেমিক লিমনের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তাকে বিয়ে করবে না বলে জানিয়ে দেয়। এতে চরম বিপাকে পড়েছে অন্তঃসত্ত্বা ও তার পরিবার।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সুমি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে গতকাল কালিহাতি থানায় অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে প্রেমিক লিমনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। লিমন পলাতক রয়েছে। পুলিশ লিমনকে গ্রেফতার করতে অভিযান পরিচালনা করছে।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.