ঝালকাঠিতে পাঁচ টাকায় হাজার টাকার বাজার পিছিয়ে নেই অক্সিজেন সেবাও

৯৯

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

ঝালকাঠির স্থানীয় সেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্বপ্নপূরণ সমাজ কল্যাণ সংস্থা’ নিম্ম ও মধ্যবিত্তদের দিচ্ছে স্বপ্নের বাজার। করোনা মহামারী শুরু থেকে এপর্যন্ত পাঁচ টাকায় মানবিক কেনাকাটা নামে তারা ১ হাজার পবিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে। চাল, ডাল, আলু, পিয়াজ, লবন, সাবান, মাক্সসহ হাজার টাকার পন্য তারা দিচ্ছে পাঁচ টাকার বিনিময়ে। মঙ্গলবার দুপুরে ঝালকাঠি কৃষ্ণকাঠি বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন স্বপ্নপূরণ সংগঠনটির কার্যালয় চত্বরে মানবিক বাজারের মাধ্যমে কর্মহীন মানুষেরা কেনাকাটা করেন।

২০২০ সালের মার্চ মাসে করোনার প্রভাবে সরকার ঘোষিত লগডাউনের কারনে কর্মহীন হয়েযায় দৈনিক খেটে খাওয়া মানুষেরা। ঐসময় থেকেই অসহায়দের জন্য মানবিক বাজার খুলে বসেন স্বপ্নপূরণ সমাজ কল্যাণ সংস্থাটি। অদ্য পর্যন্ত তারা মানবিক বাজার চালু রেখেছে। ‘পাঁচ টাকায় হাজার টাকার বাজার এতো স্বপ্নের’ বাজার এমন মন্তব্য করেছেন সুবিধাভূগী রিক্সাচালক চুন্নু মিয়া। তিনি বলেন, লগডাউনে হাঙ্গাদিন রিসকা চালাইয়া পাই ২শ টাহা, বাজার হরমু কি দিয়া। এই ক্লাবের রিয়াজ মোরে ৫ টাহায় অনেক সদায় দেছে। আরেক সুবিধাভূগী কামাল হোসেন বলেন, কাইল ঈদ এই সময় ৫ টাহায় এতো বাজার পামু ভাবতেও পারিনাই। ফাতেমা বেগম বলেন, রোজায়ও ৫ টাহায় এফতার নিছি এই স্বপ্নপূরণ কেলাব দিয়া। আইজগো আবার ৫ টাহায় যা কিনছি হেতে মাইয়া পোয়া লইয়া ১৫ দিন খাওয়ন যাইবো। সংগঠনটির সভাপতি রিয়াজ খান অশ্রু বলেন, মধ্যবিত্ত যারা ত্রানের লাইনে যেতে অপারগতা প্রকাশ করে আদের জন্যই আমাদের এই মানবিক বাজার। আমরা সাহায্য দেইনা, আমরা বিক্রি করি।হোক সেটা পাঁচ টাকায়, টাকার বিনিময়ে আমাদের কাছ থেকে খাদ্য সামগ্রী কিনে নেয় অসহায় মধ্যবিত্ত পরিবার এবং নিম্ম আয়ের খেটে খাওয়া মানুষেরা। করোনা মহামারী যতদিনে শেষ না হবে ততদিন এই মানবিক বাজার কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

এছারাও করোনা আক্রান্ত রোগীর বাড়ি বাড়ি গিয়ে অক্সিজেন সেবা দিচ্ছে এই সংগঠনের সদস্যরা।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.