জুয়ার প্রভাবে ধ্বংসের মুখে যুবসমাজ

মোঃমিসকাত খান: জুয়ার প্রভাবে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে আগামির ভবিষ্যৎ। হবিগঞ্জ শহর সহ আশেপাশের শহরতলী গ্রাম গুলো জুয়ার জন্য যেন আমেরিকার নাভাডা অঙ্গরাজ্যের লাস ভেগাস শহরের অংশ হয়ে ওঠছে। ছোট ছোট চায়ের দোকান থেকে শুরু করে মুদিদোকানে বসে সেইসব জুয়ার আসর। সেইসব দোকানে থাকা টিভিতে আইপিএল বিপিএল এবং ছোট ছোট প্রিমিয়ারলীগ দেখে এসব লীগকে কেন্দ্র করে ধরা হয় মোটা অংকের টাকার জুয়া। জুয়ার টাকা দিয়ে কেউ কেউ কিনছে নেশাজাত দ্রব্য রাতভর চলছে নেশা,কেউ কেউ জুয়ার টাকা যোগানে করছে চরাসুদে ঋণ আর সেই ঋণের টাকা পরিশোধ করতে বেছে নিচ্ছে চুরি,ডাকাতি,চিন্তাই ও মাদক পাচারের মত অপরাধের রাস্তা।দিনে দিনে ঝড়ে পড়ছে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী নষ্ট হয়ে যাচ্ছে মা-বাবার দেখা অনেক স্বপ্ন।যে বয়সে একটা ছেলে বইয়ের ব্যাগ কাধে স্কুল কলেজে যাওয়ার কথা সেই বয়সে মাথায় ঘুরে জুয়ার নেশা হাতে সিগারেট,দিনে দিনে বাড়ছে বখাটেদের সংখ্যা,পাড়া,মহল্লার মোড়ে দোকানে বসে জুয়া খেলা বখাটেদের দ্বারাই আজ সমাজে বাড়ছে মেয়েদের উতক্ত করা,হয়রানি ও ধর্ষণের মত অপরাধ।তাই এসবের বিরুদ্ধে স্থানীয় প্রশাসনের কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া এবং স্থানীয় প্রভাবশালী সহ সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের সচেতন ভূমিকা রাখা উচিৎ।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.