চরফ্যাসনে ৫দিনেও সন্ধান মেলেনি ঈশা মনির,পরিবারে কান্নার রোল

১০

নুরুল্লাহ ভূইয়া, চরফ্যাসন(ভোলা) : মায়ের কান্নায় বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে ঈশা মনিদের বাড়িতে। ৫ দিন পূর্বে গত ২৫ জানুয়ারি নিখোঁজ হয় ঈশা মনি। ভোলার চরফ্যাসন উপজেলার আবদুল্লাহপুর শিবা চৌমহনী সংলগ্ন আবুবকরপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড হাজী বাড়ির বাসিন্দা প্রবাসী তাইফুর রহমান বাচ্চুর ছোট মেয়ে নবম শ্রেণীর ছাত্রী মারিয়া আকতার ঈশা মনি গত সোমবার সকাল ১০টায় নবম শ্রেণীর বই আনার উদ্দেশ্যে আবুবকরপুর ফাজিল মাদরাসায় গেলে সেখান থেকে আর বাড়ি ফিরে আসেনি বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। ওইদিন মাদরাসার প্রিন্সিপাল ও একজন শিক্ষক ঈশা মনিকে মাদরাসা প্রাঙ্গনে দেখেছেন বলেও দাবি করেন। তবে ঈশা মনির মা ইশরাত জাহান নিপা কান্নাভরা কন্ঠে বলেন, আমার মেয়ে ২৫ তারিখে নিখোঁজের প্রায় ৩দিন পূর্বে আমাদের বাড়ির ওয়ারিশি সম্পদ নিয়ে প্রতিপক্ষের সঙ্গে বিরোধের জের ধরে বাকবিতন্ডা হয়েছে। আমার ঈশা মনিকে শত্রুতা করে গুম করা হতে পারে।

ঈশা মনির বড় বোন পিংকি জানান, তাদের সাথে পৈত্রিক সম্পদ নিয়ে পারিবারিক একটি বিরোধ রয়েছে। এবং তারই একটি গ্রুপ ষড়যন্ত্র করে এমন ঘটনা ঘটাতে পারে। তিনি আরও বলেন, এলাকার সকল যায়গায় খোঁজ খবর নিয়েছি ঈশাকে কোথাও পাওয়া যাচ্ছেনা। তবে ওর সঙ্গে কারও সাথে সম্পর্ক রয়েছে এমন কোনো সম্ভাবনা নেই। ঈশা মনির ভগ্নিপতি মিজানুর রহমান বলেন, ঈশা মনিকে যেকোনো চক্র গুম করে ফেলেছে। প্রশাসনের কাছে আমাদের আবেদন তদন্ত পূর্বক আমরা ঈশা মনির সন্ধান চাই। এ অভিযোগ প্রসঙ্গে দুলারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মুরাদ হোসেন জানান, নিখোঁজ ঈশা মনির পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করা হয়েছে। বার্তা পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে এবং আইনি কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.