কোরবানি

১১৭

কবি মোঃ সাইফুল ইসলাম শামীম (কৃষিবিদ)

ঘরে ঘরে খুশির আমেজ
উঠছে যিলহজ্জ্ব মাসের চাঁদ,
কয়দিন পর কোরবানির ঈদ
চারিদিকে শুনছি ভীষণ নিনাদ৷

ছুটছে মুসলিম হাটের দিকে
কিনতে কোরবানির পশু,
মুসলিমের আজি আনন্দের দিন
বৃদ্ধবৃদ্ধা যুবক যুবতী শিশু৷

সবাই সাধ্য মত কিনবে পশু
সামর্থ্য আছে যার কোরবানির,
তারি মাঝেই অংশ বিশেষ
সমাজের আত্মীয় আর গরীব দুখির৷

কোরবানি ইসলামের বড় এক রীতি,
পৃথিবী সৃষ্টির আদি থেকেই চালু,
হাবিল কাবিল কোরবানি করে
যাচাই করলো কে কত ভালো৷

সেই রেওয়াজই চলছে আজও
কেয়ামত অবধি চলবে,
এহেন মুসলিম যেটা পালন করে
এসেছিল স্বপ্নে ইব্রাহিম(আঃ) এর ক্বলবে৷

কোরবানি নয় কোন বড়াইয়ের বিষয়,
কোরবানি নয় বাহাদুরি,
কোরবানি শুধুই প্রভুর নামে উৎসর্গ
প্রভুর রাজি খুশি অতীব জরুরি৷

কে কিনল কত দামে কোরবানির পশু
কেউ করো না করো সনে বিভেদ,
উদ্দেশ্য হোক প্রভুর রাজি খুশি
মনের সাথে ধরো সবাই জেদ৷

মুসলিমে ঘরে পছন্দের পশু হবে কোরবানি
মহান প্রভুর তরে,
মানব মনের পশুত্ব আর আমিত্ব,
র্নিমূল হোক চিরতরে৷

নবী (সাঃ) এরশাদ ফরমান
কোরবানির দিন আর কিছু প্রিয় নয়,
প্রভুর কাছে ঈদের কোরবানি
যতটুকু নেক আমল হিসেবে গন্য হয়৷

কোরবানি এক মহৎ ইবাদত
পশুর শিং লোম ক্ষুর যুক্ত আমলনামায়,
কোরবানি রক্ত মাটিতে পড়ার আগেই
প্রভুর দরবারে পোঁছে যায়৷

মুসলিম তুমি আনন্দচিত্তে,
করো মিলেমিশে কোরবানি,
দূর করে দাও হীনতা পশুত্ব আর আমিত্ব
মানুষ আমরা সৃষ্টির সেরা সবাই তা জানি৷

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.