একটি অন্ধ ভালোবাসা বাস্তব গল্প

৪৪

মহসিন খান,ডেস্ক রিপোর্টঃ ছেলেটার নাম রফিকুল ইসলাম আর মেয়েটার নাম নাসরিন আক্তার। তাদের পরিচয় ১৪ বছর আগে প্রাইমারী স্কুলে। রফিকুলের বয়স যখন ১ বছর তখন টাইফয়েডের ভুল চিকিৎসার জন্য তার দুচোখ পুরোপুরি অন্ধ হয়ে যায়। আর যার নাম নাসরিন সে জন্ম থেকেই অন্ধ ।

রফিকুল জানায়, নাসরিন তার প্রেমের প্রস্তাব ৯ বার প্রত্যাক্ষান করে। এখনকার যুগে সবাই চেহারা দেখে প্রেম করে অথচ আমরা কেউ কখনো কখনো কাউকে দেখি নি। আমাদের কাছে কারো উচ্চতা কারো গায়ের চেহারা কিছুই যায় আসে না। আমরা জানি না কে দেখতে কেমন,

নাসরিন জানায় আমি রফিকে বার বার রিজেক্ট করতে করতে একটা সময় তাকে অনুভব করতে পারি। আমি আর রফিক ভালো বন্ধু ছিলাম। আমি কখনোই কল্পনা করতে পারি নি আমাদের বন্ধুত্বের বাইরে কিছু হবে কিন্তূ রফিকের পাগলামি দেখেআমি তার প্রেমে পড়ে যাই। আমরা প্রেমের সম্পর্কে জড়াই। এটাই হচ্ছে রফিক আর নাসরিনের ভালোবাসার গল্প

এর মধ্যে কয়েক সপ্তাহ আগে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে ঘর সংসার শুরু করেছে। যদিও বিবাহের আগে রফিকের কোন চাকরি ছিল না, তার পর পারস্পরিক বিশ্বাস ও আস্থার উপর ভরসা করে তারা ঘর বাধে। তারা বিশ্বাস করে যৌবন ও ভালোবাসার সাথে ক্যারিয়ারের কোন সম্পর্ক নাই, আনন্দের খবর তারা দুজনেই বেশ কিছুদিন আগে গাজিপুরের কোন এক ঔষধ প্রস্তুত কারী কোম্পানিতে চাকরি পেয়েছে। ঐ দম্পতির জন্য রইল শুভকামনা।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.