একই সমতলে

৩৪

কাজী জাকির হোসেন

তোমার অস্তিত্ব তোমার ভেতরে,
জরায়ুহীন বেড়ে ওঠে অস্তিত্ব জুড়ে।
হয়তো মনে হয়, সবকিছু ছাড়িয়ে
উঠেছো কল্পনার সুউচ্চ পর্বতশৃঙ্গে।

বেলা যখন ফুরাতে ফুরায়ে যায়,
স্বপ্নের সুতা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।
অস্তিত্বের বেলাভূমিতে শেষবেলা
আলগোছে নেমে আসে উৎস-পাঠশালা।

স্বপ্ন ও কল্পনা ছিটকে পড়ে মাতৃজঠরে
মিয়াসাব আবার নিপুণ ধৈর্য্যে মালা গাঁথে।
সময়ের বালুঘড়ি সামনে ও পেছনে যায়।
যেখানে যাত্রা, গন্তব্য সেখানেই থমকে যায়,
বুমেরাং হয়ে ফিরে আসে আপন অস্তিত্বে।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.