আনুষ্ঠানিক ভাবে মাঠে নামলো জেলা আওয়ামীলীগ

আসেননি উত্তর ব্লকের কেউ,আইভীর কঠোর হুঁশিয়ারী

৪১

রাসেল আদিত্য, জেলা প্রতিনিধি,নারায়ণগঞ্জ:

ঘোষণা মোতাবেক আজ দুপুরে জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে জমায়েত হয়েছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী সমর্থকরা।
জেলা আওয়ামীলীগের মিটিং হলেও কর্মীসমর্থকদের ভীড়ে কার্যালয় উপচে
আশেপাশের এলাকা লোকারন্য হয়ে ওঠে।মিডিয়া সহ সকলের আগ্রহ ছিলো
উত্তর ব্লকের কেউ আসেন কিনা?কিন্তু
শেষ পর্যন্ত তাঁদের কেউ আসেননি।
আড়াইহাজারের বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় জয়ী হওয়া ছয় চেয়ারম্যান সহ সভায় উপস্থিত হন জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ -২ আসনের সাংসদ নজরুল ইসলাম বাবু, তারাব পৌর মেয়র হাসিনা গাজী সহ জেলার বিভিন্ন এলাকার নেতৃবৃন্দ।
বিকাল সাড়ে তিনটায় সভায় উপস্থিত হন জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি, বর্তমান মেয়র ও আসন্ন
নাসিক নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভী।জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবদুল হাই ও জাতীয় পরিষদের সদস্য এডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু ফুলের নৌকা তুলে দিয়ে আইভীকে
বরণ করে নেন।সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বক্তারা
আসন্ন নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করতে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। পরে নিজের বক্তব্যের শুরুতে তাঁর উপর আস্থা রেখে নৌকার মাঝি মনোনীত করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার
প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।
তারপর তীব্র ক্ষোভের সাথে বলেন, নেত্রী আমার হাতে নৌকা তুলে দেবার পরে এনিয়ে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে একটি মহল।শহরে একটি দাঙ্গা হাঙ্গামা
বাঁধানোর পায়তাঁরা করছে।বিভিন্ন ধরনের প্রার্থী খোঁজা হচ্ছে, ব্যাপক চাপ
প্রয়োগ করা হচ্ছে প্রার্থী হবার জন্য।
আমি তাঁদের মনে করিয়ে দিতে চাই,
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে নৌকা দিয়েছেন,গত ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের মতো এই নির্বাচনে নৌকা ডোবাতে চেষ্টা করে নেত্রীর প্রতি অনাস্থার প্রমান দিবেন না।অস্তিত্ব রক্ষা
করতে নৌকার পক্ষে কাজ করুন।
আইভী আক্ষেপ করে বলেন,ছোট ভাই
বাবু নৌকার ছয় বিজয়ী চেয়ারম্যান নিয়ে এলো,অথচ আমাদের এমপি সাহেবরা এলেননা।চেয়ারম্যানদেরও আনলেন না।কিভাবে আনবেন, তাঁরা কোথাও নৌকা ডুবিয়ে লাঙ্গল, কোথাও হাইব্রিড কাউয়া স্বতন্ত্র প্রার্থীকে জিতিয়ে
এনেছেন।কলাগাছিয়ায় প্রথমে তিন শতাধিক ভোটে নৌকার কাজিমউদ্দিন কে বিজয়ী ঘোষণা করে পরে মধ্যরাতে
ফল পাল্টে লাঙ্গলকে পাঁচ শতাধিক ভোটে বিজয়ী ঘোষণা করা হলো।নৌকার প্রতি কতো রাগ তাঁদের!
তিনি স্পষ্ট ভাষায় বলেন,কোন অপচেষ্টা
কাজে আসবে না।নগরবাসীর উপর আমার পূর্ণ আস্থা আছে।আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি ব্যবধানে তাঁরা এবার আমাকে বিজয়ী করবেন ইনশাআল্লাহ।
জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুল হাই এর সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পরিষদের সদস্য এডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আসাদুজ্জামান, আবদুল কাদির, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান প্রমূখ।

100% LikesVS
0% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.