আজ বিশ্ব ভালবাসা দিবস

ফিরোজ মাহমুদ নাফিজ,ডেস্ক রিপোর্টঃ বিশ্বের সকল দেশের মতো বাংলাদেশেও বিশ্ব ভ্যালেন্টাইনস ডে পালিত হচ্ছে। বিশ্ব ভালবাসা দিবস ১৪ ফেব্রুয়ারি ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিনে প্রাসাদ থেকে কুঁড়েঘর সর্বত্রই হাতছানি দিয়ে ডাকছে ভালোবাসা। সারা পৃথিবীর মানুষের কাছে এ দিনটি এক অনন্য দিন এটি। এই দিনে একে অন্যকে তাদের ভালোবাসা জানায় প্রেমিক-প্রেমিকা, বন্ধু-বান্ধব, স্বামী-স্ত্রী, মা-সন্তান, ছাত্র-শিক্ষকসহ বিভিন্ন বন্ধনে আবদ্ধ মানুষেরা।

খুবই ঘটা করে আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে সমগ্র বিশ্বে এই দিনটিকে পালন করা হয়। এই দিনে ভালোবাসার মানুষদের দ্বারা পরিপূর্ণ থাকে পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্রগুলো।এই দিনে প্রিয়জনকে ফুল ও বিভিন্ন সামগ্রী উপহার দেয় সবাই।প্রিয়জনের সঙ্গে দিনভর স্বর্গীয় সুখের অনুভূতিতে মেতে থাকবেন কপোত-কপোতীরা। তারুণ্যের অনাবিল আনন্দ আর বিশুদ্ধ উচ্ছ্বাসে সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও এ দিনটি পালন করা হচ্ছে।

প্রায় ৪০০ খ্রিস্টাব্দের দিকে ভ্যালেনটাইনস ডে সার্বজনীন হয়ে ওঠে ।প্রাচীন রোমে ১৪ ফেব্রুয়ারি ছিল রোমান দেব-দেবীর রানী জুনোর সম্মানে ছুটির দিন। জুনোকে নারী ও প্রেমের দেবী বলে লোকে বিশ্বাস করত। কারো করোমতে ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস হওয়ার কারণ ছিল এটিই। আবার কেউ বলেন, রোমের সম্রাট ক্লডিয়াস ২০০ খ্রিস্টাব্দে দেশে বিয়ে প্রথা নিষিদ্ধ করেন।

তিনি ঘোষণা দেন, আজ থেকে কোনও যুবক বিয়ে করতে পারবে না। যুবকদের জন্য শুধুই যুদ্ধ। তার মতে, যুবকরা যদি বিয়ে করে তবে যুদ্ধ করবে কারা? সম্রাট ক্লডিয়াসের এ অন্যায় ঘোষণার প্রতিবাদ করেন এক যুবক। যার নাম ভ্যালেন্টাইন। অসীম সাহসী এ যুবকের প্রতিবাদে খেপে উঠেছিলেন সম্রাট। রাজদ্রোহের শাস্তি হিসেবে ১৪ ফেব্রুয়ারি ভোরে তার মাথা কেটে নেয়া হয়।ভালোবাসার জন্য ভ্যালেন্টাইনের আত্মত্যাগকে স্মরণ করতে তখন থেকেই এ দিনটিকে ভ্যালেন্টাইন দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

তবে এটিও সর্বজন স্বীকৃত নয়।এখানেও দ্বিমত আছে।কারও কারও মতে, প্রাচীন রোমে ভ্যালেন্টাইন নামে একজন চিকিৎসক ছিলেন। তিনি রোগীদের প্রতি ভীষণ সদয় ছিলেন। অসুস্থ মানুষের ওষুধ খেতে কষ্ট হয় বলে তেঁতো ওষুধ ওয়াইন, দুধ বা মধুতে মিশিয়ে খেতে দিতেন তিনি। সেই ডাক্তার খ্রিস্টধর্ম গ্রহণ করেন। প্রাচীন রোমে খ্রিস্টধর্ম তখন মোটেও জনপ্রিয় ছিলনা। এই ধর্মে বিশ্বাসীদের শাস্তি দেয়া হতো।

এভাবেই আসে ভালোবাসা দিবস নামক দিনটি।তাই আজকের এই দিনে সকলকে জানাই বিশ্ব ভালবাসা দিবসের শুভেচ্ছা ।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.