অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানলো বিরল প্রজাতির প্রানীটি

২০

সাইফুল ইসলাম, ডেস্ক রিপোর্টঃ লক্ষ্মীপুর জেলার ১৭ নং ভবানীগন্ঞ্জ ইউনিয়নের পশ্চিম চর উভূতি গ্রামে ধরা পড়ে এই বিরল ও বিপন্ন প্রজাতির বাঘডাসটি। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাস্তার ধারে বিশাল এক কাঠের স্তুপের মধ্যে পাঁচটি বাঘডাস ছানা নিয়ে বসবাস করে আসছিলো এই মা বাঘডাসটি। হঠাৎ এলাকার মানুষের নজর পড়লে লোকসমাগম করে ঘিরে ধরে বাঘডাসের বসবাস করা আস্তানাটি। অবশেষে হূলস্হূল কর্মকান্ডের মধ্যে দিয়ে ধরা পড়ে মা বাঘডাসটি। দিশেহারা বাঘডাসটি আক্রমণ করে জখম করে দুইজনকে।

গলায় শিকল ও রশি বেঁধে রাখা হয় মা বাঘডাসটি। গাছের সাথে বেঁধে কাঠের স্তুপের ভিতর পর্যন্ত বেঁধে রাখা হয় মা বাঘডাসটি। যেনো বাচ্চাদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করতে পারে। কিন্তু উৎসুক জনতার কিছু অংশ বাঘডাসটি মেরে ফেলার পক্ষে। গলায় শিকল ও পায়ে রশি থাকার কারনেই জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে মা বাঘডাসটি। অবশেষে গলায় শিকল বেঁধে অতিরিক্ত টানাটানি তে ফাঁস লেগে ও নিদারুণ অত্যাচার দরুন মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়ে বিপন্ন এই প্রানীটি। এহেন অবস্থায় প্রানীরক্ষা অধিদপ্তরের দৃষ্টি আকর্ষণ করা ছাড়া উপায় থাকবে না। বাচ্চাগুলো উদ্ধার করে বাঁচার অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য। না এগুলোও মৃত্যুর কাছে হেরে যাবে। আইন ও সচেতনার মাধ্যমে রক্ষা করতে হবে প্রানীদের। এদের সংরক্ষণ করা না গেলে অচিরেই হারিয়ে যাবে বিপন্ন প্রজাতির এই প্রানটি।
আমাদের উচিত জীব বৈচিত্র্য রক্ষায় সকলের এগিয়ে আসা।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.