অনলাইন লটারি কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে

১০

এম মিরাজ হোসাইন,জেলা প্রতিনিধি,ভোলাঃ আজ মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) রাতে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে সারাদেশের সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১ম শ্রেণি হতে ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য আগামী ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ অনলাইন লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচনের তারিখ নির্ধারিত ছিল। কিন্তু হাইকোর্ট বিভাগের রিট পিটিশন চলমান থাকায় আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ‘ডিজিটাল লটারি কার্যক্রম’ সাময়িকভাবে স্থগিত করা হল। পরবর্তীতে অনলাইন লটারির তারিখ ও সময় যথারীতি জানিয়ে দেওয়া হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে, ১১ ডিসেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পাওয়ার পর মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি) ২০২১ শিক্ষাবর্ষে অনলাইন লটারি ভর্তির বিজ্ঞপ্তি জারি করে।

ঢাকা মহানগরীর ভেতরে ৩৯টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এই বিদ্যালয়গুলোতে প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত মোট আসন আছে সাড়ে ১১ হাজারের মতো। এর সঙ্গে জাতীয়করণ হওয়া আরও দুটি বিদ্যালয় যুক্ত হচ্ছে। এসব বিদ্যালয়গুলোতে “মাউশির” অধীন কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনায় ভর্তির কাজটি হয়ে থাকে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাউশির এবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, বিদ্যালয়গুলোকে এ, বি এবং সি মোট তিনটি ভাগে ভাগ করে ভর্তির কাজ করা হবে। একজন শিক্ষার্থী একটি ভাগের পাঁচটি বিদ্যালয়ে ভর্তির পছন্দক্রম দিতে পারবে। এখান থেকে লটারির মাধ্যমে একটি বিদ্যালয় নির্বাচন করা হবে।

50% LikesVS
50% Dislikes
Leave A Reply

Your email address will not be published.